এই মাত্র পাওয়া :

শিরোনাম: ৪ ডিসেম্বর পর্যন্ত দুই উপজেলায় বাড়লো ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা বান্দরবানে সাড়ে ৪ কোটি টাকার জব্দকৃত মাদকদ্রব্য ধ্বংস করলো আদালত আবাদ যোগ্য এক ইঞ্চি জমিও খালি না রাখতে আহবান জানালেন জেলা প্রশাসক ইয়াছমিন পারভীন তিবরীজি নাইক্ষ্যংছড়িতে উপজেলা নির্বাহী অফিসার এর হস্তক্ষেপে বাল্য বিয়ে পন্ড নাইক্ষ্যংছড়ি তে ইয়াবাসহ গ্রেফতার ১ ম্রো আবাসিক উচ্চবিদ্যালয় ৪২ তম বর্ষপূর্তিতে ১ম পুনর্মিলনী ও উন্নয়ন কাজের উদ্বোধন অনুষ্ঠিত ব্লাইন্ড ক্রিকেট টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপে জাতীয় দলের হয়ে খেলবে বান্দরবানের সুকেল তঞ্চঙ্গ্যা মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী হতে যাচ্ছেন আনোয়ার ইব্রাহিম

লামায় কার্বারী খুন,খুনীকে সঙ্গে নিয়ে লাশের উদ্ধার অভিযান


প্রকাশের সময় :১ আগস্ট, ২০১৭ ১২:৪৩ : পূর্বাহ্ণ 487 Views

মোঃরফিকুল ইসলাম (লামা) বান্দরবানঃ-বান্দরবানের লামার ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের দূর্গম ত্রিশডেবা এলাকায় মারক মুরুং (৫৫) নামে এক কার্বারী (পাড়া প্রধান) খুন হয়েছে।সে নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার বাইশারী ইউনিয়নের বাকঁখালী হেডম্যান পাড়ার মৃত রইনা মুরুং এর ছেলে এবং ওই পাড়ার কার্বারী।লামা থানার অফিসার ইনচার্জ আনোয়ার হোসেন জানিয়েছেন,খুনের সন্দেহে ত্রিশডেবা মার্মা পাড়ার অংথোয়াই মার্মার ছেলে মংচাচিং মার্মা (২৫) কে রোববার রাতে আটক করে সেনাবাহিনী।মংচাচিং মার্মা ত্রিশডেবা এলাকার অংথোয়াই মার্মার ছেলে।সে পেশায় একজন কৃষক।প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে খুনের দায় স্বীকার করে।সোমবার দুপুরে লামা থানার পুলিশের একটি টিম দূর্গম ত্রিশডেবা এলাকায় অভিযুক্ত মংচাচিং মার্মাকে সাথে নিয়ে নিহতের লাশ উদ্ধারে রওনা হয়েছে।নিহতের বর্গা চাষী ত্রিশডেবা মার্মা পাড়া এলাকার উমং মার্মা (৩৭) বলেন,গত বুধবার (২৬ জুলাই) মারক মুরুং তার বর্গা জমির খাজনা নিতে ত্রিশডেবা এলাকায় আসেন এবং রাতে থাকেন।ত্রিশডেবা এলাকার ক্যওলাঅং মার্মা (৩০) ও সে তার জমির বর্গা চাষী।বৃহস্পতিবার সকালে চাষা ক্যওলাঅং মার্মা থেকে জমি লাগিয়তের খাজনা ১৯ হাজার টাকা নিয়ে বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা দেয়।এসময় মারক মুরুং এর পিছনে মংচাচিং কে যেতে গয়ালমারা ত্রিপুরা পাড়ার রবার্ট ত্রিপুরা ও গয়ালমারা এলাকার দোকানদার আবুইয়ার মা দেখেন।সে থেকে নিখোঁজ রয়েছে মারক মুরুং।এদিকে বাড়িতে ফিরে না যাওয়ায় নিহতের পরিবার আশপাশের চারদিকে খোঁজাখুজি শুরু করে।শুক্রবার নিহতের পরিবারের লোকজন ত্রিশডেবা পাড়ায় মারক মুরুং এর খোঁজে আসলে জানতে পারে টাকা নিয়ে ফেরত যাওয়ার সময় মংচাচিং মার্মা নিহতের পিছনে যায়।অবশেষে রোববার রাতে তাকে সেনাবহিনী আটক করে লামার ইয়াংছা আর্মি ক্যাম্পে নিয়ে আসে এবং সে খুনের দায় স্বীকার করে।বাকঁখালী হেডম্যান পাড়ার বাসিন্দা ও মৌজা প্রধান (হেডম্যান) থংপ্রে মুরুং বলেন,ধারনা করা হচ্ছে খাজনার ১৯ হাজার টাকার জন্য মারক মুরুং কে হত্যা করেছে মংচাচিং মার্মা।লামা থানা সূত্রে জানা যায়,সোমবার বিকেলে লামা থানার পুলিশের উপ-পরিদর্শক মাহাবুবুর রহমান,তমেজ উদ্দিন সহ পুলিশের একটি টিম অভিযুক্ত মংচাচিংকে সাথে নিয়ে নিহতের লাশ উদ্ধারে দূর্গম ত্রিশডেবা এলাকায় রওনা দিয়েছে।ঘটনাস্থল লামা সদর থেকে ৩০/৩৫ কিলোমিটার দূরে।

ট্যাগ :

আরো সংবাদ

ফেইসবুকে আমরা



আর্কাইভ
November 2022
M T W T F S S
1234567
891011121314
15161718192021
22232425262728
293031  
আলোচিত খবর

error: কি ব্যাপার মামা !!