শিরোনাম: আলোচনায় কেএনএফ প্রধানের স্ত্রীঃ করা হলো স্ট্যান্ড রিলিজ সাঙ্গু নদীতে ফুল ভাসিয়ে শুরু হলো চাকমা-তঞ্চঙ্গ্যাদের বিঝু-বিষু উৎসব যথাযোগ্য মর্যাদা ও উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে পবিত্র ঈদুল ফিতরের ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত বান্দরবানে রুমা-থানচি ব্যাংক ডাকাতির ঘটনায় ৫২ জন কারাগারে স্মার্ট বান্দরবান-স্মার্ট ক্রীড়াঙ্গনঃ ঈদুল ফিতর ও মাহা সাংগ্রাই পোয়েঃ উপলক্ষে খেলোয়াড়রা পেলো শুভেচ্ছা উপহার বান্দরবানে জেলা প্রশাসনের কর্মচারীরা পেলো প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঈদ উপহার থানচিতে ব্যাংক ডাকাতির ঘটনায় গ্রেফতার আরও ৪ রুমায় সোনালী ব্যাংকের সহকারী ক্যাশিয়ারসহ দুই কেএনএফ সন্ত্রাসী আটক

রোয়াংছড়ি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার প্রত্যাহার দাবীতে মানববন্ধন


আকাশ মার্মা মংসিং (নিজস্ব সংবাদদাতা) বান্দরবান প্রকাশের সময় :২৮ ডিসেম্বর, ২০২১ ৪:১৫ : অপরাহ্ণ 542 Views

বান্দরবানে রোয়াংছড়ি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফোরকান এলাহীর বিরুদ্ধে ট্যুরিষ্ট গাইডদের সদস্য উ অং সিং মারমাকে আইন নিজের হাতে তুলে বেআইনিভাবে মারধরের প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে রোয়াংছড়ি ট্যুরিষ্ট গাইড সদস্যরা।মঙ্গলবার (২৮ ডিসেম্বর) দুপুরে রোয়াংছড়ি উপজেলা কার্যালয় চত্বরে রোয়াংছড়ি ট্যুরিষ্ট গাইড সমিতি ব্যানারে এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।মানবন্ধনে ইউএনও ফোরকান এলাহীকে অপসারণ এবং পাঁচটি দাবি জানানো হয়।এসময় ব্যানার ও প্লেকার্ড ফেষ্টুন হাতে নিয়ে স্থানীয় প্রায় শতাধিক ট্যুরিস্ট গাইড ও ভুক্তভোগী পরিবার বৃন্দরা অংশ নেন।মানববন্ধনে ভুক্তভোগী পর্যটক গাইড উ অং সিং মারমা বলেন,২৬ শে ডিসেম্বর সকালে ইউএনও মহোদয় ফোন করে আমাকে তাঁর কার্যালয়ে ডেকে ঘটনার বিষয়ে প্রথমে জিজ্ঞেসাবাদ করেন।এক পর্যায়ের দরজা বন্ধ করে ইচ্ছে মত কিল ও ঘুষি মেরে আঘাত করতে থাকেন।এখনও হাতে ব্যাথা আছে।ভুক্তভোগীর পিতা মুই সা চিং বলেন,আজকে সামান্য অপরাধে আমার ছেলেকে ইচ্ছা মত পিটালো ইউএনও মহোদয়।আগামীতে আরেক পরিবারের ছেলের উপর আবারও বেআনইনিভাবে হাত তুলতে পারে।আমরা এ রকম ন্যাক্কারজনক ঘটনার সুষ্ঠু সমাধান ও বিচার চাই।রোয়াংছড়ি উপজেলা ট্যুরিস্ট গাইড কমিটির সভাপতি পলাশ তঞ্চঙ্গ্যা বলেন,ফোরকান এলাহী (অনুপম) স্যার আমি ও উ অং সিং (ভুক্তভোগী গাইড) কে তাঁর অফিসে ডেকে পাঠান।অনেকক্ষণ কথা বলার পর তিনি (ইউএনও) হঠাৎ রেগে যান।তারপর দরজা জানালা বন্ধ করে আমার গাইড ভাইকে মারতে শুরু করেন।পরে আহত অবস্থায় তাকে হাসপাতালে ভর্তি করেছি।এ ব্যাপারে উপজেলার চেয়ারম্যান চহাইমং মারমা জানান,নির্বাচনের কারণে ঘটনার বিষয়টি তিনি অবগত ছিলেন না।তারপরও খোঁজ নিয়ে দুই পক্ষের সাথে বসে সমাধানের চেষ্টা করার আশ্বাস দেন এই জনপ্রতিনিধি।এর আগে রোয়াংছড়ি ট্যুরিষ্ট গাইড অফিস কার্যালয় হতে প্রতিবাদী শো ডাউন করে উপজেলা কার্যালয় প্রাঙ্গনে এসে শেষ হয়।উল্লেখ্য যে,গত ২৫ শে ডিসেম্বর রোয়াংছড়ি পর্যটন স্পট দেবতাকুমের নৌকা যোগে পাড় হাওয়ার সময় সিরিয়াল সংক্রান্ত জটিলতা নিয়ে উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তার অতিথিদের সাথে দেবতাকুম পরিচালনা কমিটির সাথে কথা কাটাকাটি হয়।পরে সরকারি কার্যালয়ে ডেকে নিয়ে স্থানীয় এক টুরিস্ট গাইড় কে মারধরের অভিযোগ উঠে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার বিরুদ্ধে।

ট্যাগ :

আরো সংবাদ

ফেইসবুকে আমরা



আর্কাইভ
April 2024
M T W T F S S
 1
2345678
9101112131415
16171819202122
23242526272829
3031  
আলোচিত খবর

error: কি ব্যাপার মামা !!