এই মাত্র পাওয়া :

শিরোনাম: বান্দরবানে শুরু হলো কলাগাছের আঁশ থেকে সুতা উৎপাদন ও কাপড় বুননের প্রশিক্ষণ লামা উপজেলায় ১০ অবৈধ ইটভাটা কে সাড়ে ২৮ লাখ টাকা জরিমানা সাদেক হোসেন চৌধুরী’কে ছুরিকাঘাত ও ছিনতাইয়ের ঘটনায় গ্রেফতার ২ বান্দরবানে শেখ কামাল আন্ত: স্কুল ও মাদ্রাসা এ্যাথলেটিকস প্রতিযোগিতা-২৩ অনুষ্ঠিত বান্দরবান ডায়াবেটিক সমিতির অভিষেক অনুষ্ঠান ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত বান্দরবান সদর থানার আয়োজনে বিট পুলিশিং সভা অনুষ্ঠিত বান্দরবানে জেলা ক্রীড়া অফিসের আয়োজনে বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন শিশুদের বার্ষিক ক্রীড়া উৎসব অনুষ্ঠিত সম্প্রীতি আর উন্নয়ন নিয়ে পার্বত্য অঞ্চলে আমরা এগিয়ে যাচ্ছিঃ মন্ত্রী বীর বাহাদুর

পার্বত্য চট্টগ্রাম মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির ২৩তম বৈঠক অনুষ্ঠিত


প্রকাশের সময় :২৭ এপ্রিল, ২০১৭ ৪:৩৪ : পূর্বাহ্ণ 920 Views

সিএইচটি টাইমস নিউজ ডেস্কঃ-অবশেষে প্রায় ৮০ হাজার জনসংখ্যা নির্ভর কাপ্তাই উপজেলাকে মৌজা ঘোষণা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।১৭৩.২৫ বর্গকিলোমিটার আয়তন নির্ভর এই উপজেলাকে সরকারিভাবে অধিগ্রহণ করে মৌজা ঘোষণা করার কাজ ইতোমধ্যেই শুরু হয়ে গেছে বলে পার্বত্য চট্টগ্রাম মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির ২৩তম বৈঠকে উত্থাপিত হয়েছে। ৭৯% শিক্ষার হার নির্ভর পার্বত্য জেলা রাঙামাটির সংরক্ষিত বনাঞ্চল নির্ভর কাপ্তাই উপজেলাকে শীঘ্রই মৌজা ঘোষনা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।ওই এলাকার কয়েক হাজার স্থায়ী বাসিন্দার দাবির প্রেক্ষিতে পার্বত্য চট্টগ্রামের সংসদ সদস্য ফিরোজা বেগম চিনুর মাধ্যমে উত্থাপিত বহুল কাঙ্খিত এই প্রস্তাবটি বাস্তবায়নে বুধবার পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রনালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত হয়েছে বলে বৈঠক সূত্রে জানা গেছে।ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৩ আসনের সংসদ সদস্য র আ ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরীর সভাপতিত্বে ২৩তম বৈঠকটি জাতীয় সংসদ ভবনের পশ্চিম ব্লকের ২য় লেবেলে অবস্থিত কেবিনেট কক্ষে বিকেল ৩টায় অনুষ্ঠিত বৈঠকে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন,পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর এমপি,রাঙামাটির সংসদ সদস্য উষাতন তালুকদার,সদস্য এমএ লতিফসহ সংশ্লিষ্ট্য উচ্চ পদস্থ সচিব ও কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।বৈঠকে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির ২২তম বৈঠকের কার্যবিবরণী অনুমোদন ও সিদ্ধান্তসমূহের বাস্তবায়ন অগ্রগতি পর্যালোচনা,পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের চলমান উন্নয়ন প্রকল্পের অগ্রগতি আলোচনা ও বিবিধ বিষয় নিয়ে বৈঠকে আলোচনা করা হয়।এদিকে বৈঠকে উপস্থিত থাকা পার্বত্য চট্টগ্রামের সংসদ সদস্য ফিরোজা বেগম চিনু জানিয়েছেন,বিকেল তিনটার সময় অনুষ্ঠিত হওয়া স্থায়ী কমিটির ২৩ তম এই বৈঠকে জানানো হয় যে,ইতোমধ্যেই কাপ্তাইয়ের সংরক্ষিত এলাকাগুলোকে সরকারিভাবেই সকল প্রক্রিয়া সম্পন্ন করার জন্যে সুপারিশমালা হয়ে গেছে।এখন প্রজ্ঞাপন জারির কার্যক্রম চলমান রয়েছে।এরআগে বিগত ২২তম মিটিংয়ে কাপ্তাইবাসীর দীর্ঘদিনের এই দাবিটি উত্থাপন করে কাপ্তাইকে মৌজা ঘোষণা করার প্রস্তাবটি পাশ করার দাবি জানিয়েছিলেন,পার্বত্য চট্টগ্রামের সংসদ সদস্য ফিরোজা বেগম চিনু।তার জোরালো পদক্ষেপের কারনেই অবশেষে স্থায়ী কমিটির সকল সকল সদস্য ঐক্যমত পোষণ করে বুধবার ২৩তম বৈঠকে কাপ্তাইকে মৌজা ঘোষণার সিদ্ধান্ত নিয়ে সুপারিশ মালা প্রদান করেছে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটি।অপরদিকে বৈঠকে রাঙামাটি জেনারেল হাসপাতালের আধুনিকায়ন বিষয়ে সংসদ সদস্য ফিরোজা বেগম চিনুর অপর আরেকটি প্রস্তাবের প্রেক্ষিতে জানানো হয়,রাঙামাটি জেনারেল হাসপাতালের জন্যে ২০কোটি টাকার একটি বিশেষ প্রকল্প নেওয়া হয়েছে।শীঘ্রই এই প্রকল্প বাস্তবায়নের কাজ শুরু করা হতে পারে।এমপি চিনুর দাবির প্রেক্ষিতে জেনারেল হাসপাতালের জন্যে এবং নানিয়াচর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এর জন্য আগামী ডিসেম্বর মাসের মধ্যেই একটি করে এ্যাম্বুলেন্স প্রদান করা হবে বলেও সিদ্ধান্ত নিয়েছে স্থায়ী কমিটি।অপরদিকে বৈঠকে রাঙামাটির কাপ্তাই হ্রদে অবৈধ ঝাঁক অপসারনে কার্যকর পদক্ষেপ নেওয়ায় রাঙামাটির বিএফডিসি কর্তৃপক্ষের ভূয়সী প্রশংসাও করা হয়।এসময় বৈঠকে সংসদ সদস্য ফিরোজা বেগম চিনু বিএফডিসি রাঙামাটির সার্বিক কার্যক্রম স্ব-চক্ষে প্রত্যক্ষ করার তথ্য উপস্থাপন করার কথা জানিয়ে বলেন,আমি নিজে সরেজমিনে গিয়ে বিএফডিসি কর্তৃক অবৈধ ঝাঁক অপসারণ কার্যক্রম প্রত্যক্ষ করেছি।বিএফডিসির ব্যবস্থাপক কমান্ডার আসাদুজ্জামান তরুন একজন দায়িত্বশীল কর্মকর্তা উল্লেখ করে এমপি ফিরোজা বেগম চিনু বলেন,তার বলিষ্ট ভূমিকার কারনেই কাপ্তাই হ্রদে ব্যঙের ছাতার মতো অবৈধভাবে গজিয়ে উঠা জাঁক অপসারণ কার্যক্রম চলছে। ইতিমধ্যেই এর সুফলও পেতে শুরু করেছে রাঙামাটি জেলাবাসী।এমপির মাধ্যমে উত্থাপিত প্রস্তাবের প্রেক্ষিতে স্থায়ী কমিটির সকল সদস্য কাপ্তাই হ্রদে অবৈধ জাক অপসারনে বিএফডিসি কর্তৃক জাক অপসারণ কার্যক্রম অব্যাহত রাখার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।এদিকে পার্বত্য চট্টগ্রাম থেকে নতুন শিক্ষক নাদিয়ে বর্তমানে কর্মরত শিক্ষক-শিক্ষিকাদের কাউকেই স্বীয় পদ খালি করে অন্যত্র বদলী করা যাবেনা মর্মেও সিদ্ধান্ত নিয়েছে স্থায়ী কমিটি।

ট্যাগ :

আরো সংবাদ

ফেইসবুকে আমরা



আর্কাইভ
February 2023
M T W T F S S
 123456
78910111213
14151617181920
21222324252627
28293031  
আলোচিত খবর

error: কি ব্যাপার মামা !!