এই মাত্র পাওয়া :

শিরোনাম: বান্দরবানে শুরু হলো কলাগাছের আঁশ থেকে সুতা উৎপাদন ও কাপড় বুননের প্রশিক্ষণ লামা উপজেলায় ১০ অবৈধ ইটভাটা কে সাড়ে ২৮ লাখ টাকা জরিমানা সাদেক হোসেন চৌধুরী’কে ছুরিকাঘাত ও ছিনতাইয়ের ঘটনায় গ্রেফতার ২ বান্দরবানে শেখ কামাল আন্ত: স্কুল ও মাদ্রাসা এ্যাথলেটিকস প্রতিযোগিতা-২৩ অনুষ্ঠিত বান্দরবান ডায়াবেটিক সমিতির অভিষেক অনুষ্ঠান ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত বান্দরবান সদর থানার আয়োজনে বিট পুলিশিং সভা অনুষ্ঠিত বান্দরবানে জেলা ক্রীড়া অফিসের আয়োজনে বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন শিশুদের বার্ষিক ক্রীড়া উৎসব অনুষ্ঠিত সম্প্রীতি আর উন্নয়ন নিয়ে পার্বত্য অঞ্চলে আমরা এগিয়ে যাচ্ছিঃ মন্ত্রী বীর বাহাদুর

ভালো কাজের স্বীকৃতি হিসেবে সম্মাননা পেলেন ট্রাফিক পুলিশ পরিদর্শক মো.নুরুল আবছার


ডেস্ক রিপোর্ট প্রকাশের সময় :১৬ জানুয়ারি, ২০২৩ ২:১৮ : অপরাহ্ণ 75 Views

ভালো কাজের স্বীকৃতি হিসেবে সম্মাননা ও নগদ অর্থ পুরষ্কার পেলেন বান্দরবান সদর ট্রাফিক এর পুলিশ পরিদর্শক (শহর ও যানবাহন) মো.নুরুল আবছার।জানা যায়,ডিসেম্বর মাসে শ্রেষ্ঠ ট্রাফিক অফিসার হিসেবে নির্বাচিত হন বান্দরবান জেলা শহরে মাঠ পর্যায়ে পরিবহনের শৃঙ্খলা নিশ্চিত করতে কাজ করা পুলিশের চৌকস কর্মকর্তা মো.নুরুল আবছার।

রবিবার (১৫ই জানুয়ারি) জেলা পুলিশ এর মাসিক কল্যান সভায় বান্দরবানের পুলিশ সুপার মো.তারিকুল ইসলাম, পিপিএম ট্রাফিক পুলিশের এই কর্মকর্তাকে সম্মাননা স্মারক এবং উপহার হিসেবে নগদ অর্থ তুলে দেন।পুলিশ লাইনস অডিটরিয়ামে জেলা পুলিশের মাসিক এই কল্যাণ সভাটি অনুষ্ঠিত হয়।পুলিশ সুপার মো.তারিকুল ইসলাম,পিপিএম এর সভাপতিত্বে আয়োজিত কল্যান সভায় জেলা পুলিশের উর্ধতন কর্মকর্তা ও পুলিশ সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

সম্মাননা ও পুরষ্কার পেয়ে পুলিশ পরিদর্শক মো.নুরুল আবছার তাৎক্ষনিক প্রতিক্রিয়ায় বান্দরবান এর পুলিশ সুপার মো.তারিকুল ইসলাম,পিপিএম এর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন।তিনি মনে করেন,ভালো কাজ এর স্বীকৃতি হিসেবে পুরস্কার প্রাপ্তি একটি সম্মানের বিষয়।এতে কাজের গতি বৃদ্ধি করে।এসময় তিনি ট্রাফিক পুলিশের সকল পর্যায়ের কর্মকর্তা এবং সহকর্মীকে ধন্যবাদ জানান।এসময় তিনি সকলের সহযোগিতাও কামনা করেন।

উল্লেখ্য,পুলিশ পরিদর্শক (ট্রাফিক) মো.নুরুল আবছার দায়িত্ব গ্রহনের পরপরই বান্দরবান এর মতো একটি পর্যটন শহরে সড়কের শৃঙ্খলা ফেরাতে নিবিড়ভাবে তৎপর ছিলেন।এছাড়াও সড়ক দুর্ঘটনা প্রতিরোধে তিনি পরিবহন মালিক,শ্রমিকসহ সকল কতৃপক্ষের সাথে সমন্বয় করে বিভিন্ন সচেতনতামূলক কর্মসূচি সফলভাবে বাস্তবায়ন করেন।বিশেষ করে জেলা শহরে মোটরসাইকেলসহ বিভিন্ন পরিবহন চালকদের সড়ক আইন অমান্য করা,উচ্চগতি,ফিটনেস না থাকা,হেলমেট ব্যবহার না করা,অবৈধ পার্কিং সহ নানা অভিযোগে তাদেরকে অর্থ জরিমানা এবং মামলা দিয়েছেন।

জানা যায়,পুলিশ সুপার মো.তারিকুল ইসলাম,পিপিএম এর সার্বিক দিকনির্দেশনায় সড়কে বেশকিছু অভিযানে কঠোরভাবে দায়িত্ব পালন করে ট্রাফিক পুলিশ এর এই কর্মকর্তা গত কিছুদিন ধরে জেলা সদরে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে অবস্থান করছিলেন।

তবে বান্দরবান জেলা শহরে বসবাসরত সচেতন নাগরিকরা পুলিশের এই কর্মকর্তার ভুমিকা কে প্রশংসনীয় বলে মন্তব্য করতে শোনা যায়।তারা মনে করেন,একটি সড়ক দুর্ঘটনা সারা জীবনের কান্না।পর্যটন শহর বান্দরবান এর সড়কে শৃঙ্খলা নিশ্চিত করতে হলে এমন অভিযান এর বিকল্প নাই।এই ধরনের কার্যক্রমগুলো বান্দরবান ট্রাফিক পুলিশ অব্যাহত রাখুক।পাশাপাশি জেলা শহরে মোটরসাইকেল,ইজিবাইক (টমটম) এর দৌরাত্ব কঠোরভাবে শৃঙ্খলায় আনার দাবিও জানিয়েছেন বান্দরবান শহরে বসবাসরত সচেতন সমাজ।

ট্যাগ :

আরো সংবাদ

ফেইসবুকে আমরা



আর্কাইভ
February 2023
M T W T F S S
 123456
78910111213
14151617181920
21222324252627
28293031  
আলোচিত খবর

error: কি ব্যাপার মামা !!