শিরোনাম: ৪০ হারানো মোবাইল ফোন উদ্ধার করলো ২ আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন স্মার্ট বান্দরবান-স্মার্ট ক্রীড়াঙ্গনঃ পুলিশ সুপার সৈকত শাহীনের উপহার পেলো কাবাডি খেলোয়াড়রা রিজিয়ন প্রীতি ক্রিকেট টুর্নামেন্ট-২৪ এর ফাইনাল খেলা ও পুরষ্কার বিতরন অনুষ্ঠিত বীর বাহাদুর স্কুল এন্ড কলেজের বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতার পুরষ্কার বিতরন অনুষ্ঠিত পাহাড়ের বৈচিত্র্য ও সৌন্দর্য্য বিশ্ব দরবারে তুলে ধরতে বান্দরবানে হয়ে গেলো ম্যারাথন দৌড় প্রতিযোগিতা যথাযথ ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে বান্দরবানে পালিত হলো অমর একুশে বান্দরবানে জেলা প্রশাসকের বিশেষ বিবেচনায় দ্রুত সময়ে স্থায়ী বাসিন্দা সনদ পেলেন মেধাবী শিক্ষার্থী ক্য ক্য উঁয়া মার্মা লাইব্রেরী মানুষের বাহ্যিক জ্ঞানকে আরো বেশি প্রসারিত করেঃ লেঃ কর্নেল মাহমুদুল হাসান

প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগ ভিত্তিহীন এবং অপপ্রচারঃ ক্য শৈ হ্লা


নিজস্ব সংবাদদাতা প্রকাশের সময় :৭ জুলাই, ২০২২ ৬:২০ : অপরাহ্ণ 348 Views

প্রশ্নপত্র ফাঁসের বিষয়টি একদমই সঠিক নয় বলে জানিয়েছেন বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ক্য শৈ হ্লা।অভিযোগটি প্রত্যাখ্যান করে এটিকে তিনি অপপ্রচার বলে অভিহিত করেন।তিনি বলেন,একটি নিয়োগ পরীক্ষা নিতে হলে সরকারের প্রতিটি বিভাগের প্রতিনিধিদের উপস্থিতিতে প্রশ্ন পত্র তৈরি করা থেকে শুরু করে যাবতীয় কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়।

এসময় শিক্ষা এবং কারিগরি এই দুটি বিভাগের পরীক্ষার্থীর বয়স নিয়ে কোনও ছাড় নেই বলেও মন্তব্য করেন বান্দরবান জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ক্য শৈ হ্লা।বান্দরবান জেলা পরিষদ বয়স নিয়ে কাওকে কোনও ধরনের বাড়তি সুযোগ দিচ্ছে না।বয়স ৪০ নয় বর্তমানে ৩০ বছর বয়সীরাই সরকারি নিয়মানুযায়ী চাকরি তে বিবেচিত হচ্ছে।

বৃহস্পতিবার (৭ জুলাই) বান্দরবান জেলা পরিষদ সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত এক জনাকীর্ণ সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ক্য শৈ হ্লা।তিনি আরও বলেন,কোভিডের প্রথম দিকে যেসব পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয় তখন পরীক্ষার্থীদের কিছু বিষয় মানবিক কারণে ছাড় দেয়া হলেও পরবর্তীতে কোনও ধরনের ছাড় দেয়া হয়নি।

এক্ষেত্রে এবারের শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী কিছু পরীক্ষার্থীরা অনৈতিক কার্যক্রমের সাথে লিপ্ত হওয়ায় তাদের খাতা পত্র জব্দ করা হয়েছে।এর বাইরে আরও যেসব অভিযোগ আমাদের নজরে আনা হচ্ছে এবং বিভিন্নভাবে উত্থাপন করা হচ্ছে তার সত্যতা নিয়ে তদন্ত করা হচ্ছে।সর্বোপরি এবারের শিক্ষক নিয়োগে কোনও প্রকারের অনিয়ম হয়নি।

স্বচ্ছতাকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে জেলা পরিষদ সম্মিলিত সকল বিভাগের প্রতিনিধিদের সমন্বয়ে এই প্রশ্ন পত্র তৈরি করে।হুট করে একটা প্রোপাগান্ডা ফেসবুকে বা মিডিয়াতে ছেড়ে দিলে তো হবে না।এর সত্যতা কি এটাও তো ভাবতে হবে এবং জানতে হবে।

এ সময় জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ক্য শৈ হ্লা আরও বলেন,কেউ কেউ নিজস্ব লোকজনের নিয়োগ না হওয়ায় ক্ষুব্ধ হয়েছেন।এছাড়া জেলা পরিষদকে বিতর্কিত ও সুনাম ক্ষুন্ন করার জন্য কিছু ব্যক্তি ও চক্র নানা ষড়যন্ত্র করছে।ওই চক্রটিই জেলা পরিষদের নিয়োগ প্রক্রিয়াকে প্রশ্নবিদ্ধ করতে অপপ্রচার চালিয়ে যাচ্ছে।

এসময় চেয়ারম্যান ক্য শৈ হ্লা সাংবাদিকদের বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশন করারও আহবান জানান।তিনি বলেন, ভিত্তিহীন সংবাদ প্রচার থেকে সরে আসতে হবে।প্রোপাগান্ডা দিয়ে সমাজের কোনও উন্নতি হবে না।এতে করে সমাজে ব্যাক্তি ও প্রতিষ্ঠানের প্রতি সাধারণ জনগণের বিরুপ ধারণা তৈরি হয় ও বিশৃঙ্খল পরিবেশ সৃষ্টি করে।

জেলা পরিষদ এর নির্বাহী কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল মামুন,সদস্য সত্যহা পাঞ্জি ত্রিপুরা,কাঞ্চন জয় তঞ্চঙ্গ্যা,বাশৈচিং মার্মা,বান্দরবান প্রেসক্লাব সভাপতি আমিনুল ইসলাম বাচ্চু,সাবেক সভাপতি মনিরুল ইসলাম মনু,সাধারণ সম্পাদক মিনারুল হকসহ প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকরা সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন।

এসময় জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ক্য শৈ হ্লা,তিনি তার শারীরিক অসুস্থকালীন সময়ে সার্বক্ষণিক খোঁজখবর নেয়ার জন্য সাংবাদিকদের ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।এছাড়াও তিনি মুসলিম সম্প্রদায়ের অন্যতম ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদুল আযহা উপলক্ষে বান্দরবানের জনসাধারণ কে ঈদুল আযহা উপলক্ষে শুভেচ্ছা জানান।

ট্যাগ :

আরো সংবাদ

ফেইসবুকে আমরা



আর্কাইভ
February 2024
M T W T F S S
 12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
2728293031  
আলোচিত খবর

error: কি ব্যাপার মামা !!