শিরোনাম: বান্দরবানে ধর্ষনের দায়ে ১ জনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড রুমা উপজেলায় মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় নিহত ১ ৪০ হারানো মোবাইল ফোন উদ্ধার করলো ২ আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন স্মার্ট বান্দরবান-স্মার্ট ক্রীড়াঙ্গনঃ পুলিশ সুপার সৈকত শাহীনের উপহার পেলো কাবাডি খেলোয়াড়রা রিজিয়ন প্রীতি ক্রিকেট টুর্নামেন্ট-২৪ এর ফাইনাল খেলা ও পুরষ্কার বিতরন অনুষ্ঠিত বীর বাহাদুর স্কুল এন্ড কলেজের বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতার পুরষ্কার বিতরন অনুষ্ঠিত পাহাড়ের বৈচিত্র্য ও সৌন্দর্য্য বিশ্ব দরবারে তুলে ধরতে বান্দরবানে হয়ে গেলো ম্যারাথন দৌড় প্রতিযোগিতা যথাযথ ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে বান্দরবানে পালিত হলো অমর একুশে

কবির বিনতে তাহসিনঃ জেলা প্রশাসকের সহায়তা পেয়ে দেখছে নতুন স্বপ্ন


নিজস্ব সংবাদদাতা প্রকাশের সময় :১৬ মার্চ, ২০২২ ২:৫৭ : অপরাহ্ণ 371 Views

কবির বিনতে তাহসিন।বান্দরবান সদর উপজেলার রেইচা বাজার সংলগ্ন এলাকায় মা বাবার সাথে মেয়েটি বসবাস করে।বাবা দরিদ্র কৃষক এবং মা গৃহিণী।দুই ভাইয়ের একজন বান্দরবান সরকারি কলেজে পড়াশুনা করে এবং ছোট ভাই চট্টগ্রামের একটি মাদ্রাসায় ‘হেফয’ বিষয়ে পড়াশুনা করে৷দারিদ্রের সাথে সংগ্রাম করা মেয়েটি স্কুল জীবনের পড়ালেখা সফলভাবে শেষ করলেও কলেজে পড়ালেখা চালিয়ে যাওয়া মেয়েটির বাবার পক্ষে সম্ভব হচ্ছিল না।প্রতিকূলতাকে পাশ কাটিয়ে মেয়েটি যেনো তার শিক্ষা জীবন সফলতার সাথে পার করে স্বাবলম্বী হতে পারে সেই লক্ষ্য নিয়ে বান্দরবানের জেলা প্রশাসক ইয়াছমিন পারভীন তিবরীজি কবির বিনতে তাহসিনের ভর্তির যাবতীয় খরচ প্রদান করেছেন।এসময় বিজ্ঞান বিভাগের যাবতীয় বই তাঁর হাতে তুলে দেন এবং তাকে পড়ালেখা চালিয়ে যাওয়ার জন্য পরামর্শ প্রদান করেন।পাশাপাশি জেলা প্রশাসক একই সঙ্গে বান্দরবান সরকারি কলেজের অধ্যক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করে তাহসিন কে বৃত্তির ব্যবস্থা করে দেওয়ার জন্য অনুরোধও জানান।বুধবার (১৬ মার্চ) দুপুরে জেলা প্রশাসক,বান্দরবান এর একটি ফেসবুক বার্তায় এমন বর্ননাই উঠে আসে।এদিকে শুধু রেইচার শিক্ষার্থী তাহসিনই নয়,গত ১১ মে’২১ (মঙ্গলবার) দুপুরে বান্দরবান জেলা থেকে মেডিকেলে ভর্তির সুযোগপ্রাপ্ত ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠি সম্প্রদায়ের উহাই মং মার্মা নামে এক যুবককে মেডিকেলে ভর্তি ও বই কেনার জন্য অর্থ সহায়তা প্রদান করে সর্বমহলে প্রশংসিত হন বান্দরবানের জেলা প্রশাসক ইয়াছমিন পারভীন তিবরীজি।সেসময় উহাই মং মার্মাকে নগদ ৩০হাজার টাকার চেক তুলে দেয়া হয়।একই বছরের ১৮ নভেম্বর বিকেলে বান্দরবান জেলা প্রশাসক কার্যালয় প্রাঙ্গনে জেলা প্রশাসক ইয়াছমিন পারভীন তিবরীজি হতদরিদ্র দিনমজুর মো.আব্দুস সালামকে একটি নতুন তৈরিকৃত রিকশা উপহার দেন।সেদিন উপহার পেয়ে অশ্রুসিক্ত সালামের দুচোখ গড়িয়ে পড়া জলে ছিল জেলা প্রশাসকের প্রতি কৃতজ্ঞতা আর ভালোবাসার চরম অভিব্যক্তি।একই বছর রোয়াংছড়ি উপজেলার এক অসহায় প্রতিবন্ধী মোনাফকে প্রধানমন্ত্রীর উপহার হিসেবে আশ্রয়ণের ঘর দেওয়ার পাশাপাশি নিজস্ব অর্থায়নে জেলা প্রশাসক তৈরি করে দিয়েছেন একটি দোকান এমনকি কিনে দিয়েছেন সেই দোকানের সমস্ত মালামাল।এখন দোকান থেকে অর্জিত আয় দিয়েই স্বাচ্ছন্দে জীবনযাপন করছে মোনাফ।শুধু তাই নয় এই দোকানের প্রথম ক্রেতা হিসেবে কেনাকাটার খবরটি একজন মানবিক ও মহানুভব জেলা প্রশাসক হিসেবে প্রশংসার ঝড় তুলেছিলো দেশজুড়ে।বান্দরবানের জেলা প্রশাসন কে দিয়েছিলো নতুন মাত্রা।প্রসঙ্গত,বান্দরবানে জেলা প্রশাসক হিসেবে যোগদানের পর থেকে জেলা প্রশাসনকে গতিশীল করার পাশাপাশি জেলার গরীব ও অসহায়দের বিভিন্নভাবে সহায়তা করে যাচ্ছেন বান্দরবানের জেলা প্রশাসক ইয়াছমিন পারভীন তিবরীজি।পাশাপাশি নানাভাবে তিনি বহু শিক্ষার্থীর পাশে দাড়িয়েছেন।কোভিড-১৯ এর কারণে কর্মহীন হয়ে পড়া দু:স্থ অসহায়দের বিভিন্নভাবে ত্রাণ সহায়তা প্রদানের পাশাপাশি বিভিন্ন মানবিক সহায়তা দ্রুত সময়ে সরবরাহের কারণে শুধু বান্দরবান জেলায় নয় সমগ্র বাংলাদেশে একজন মানবিক জেলা প্রশাসক হিসেবে পরিচিতি লাভ করা ইয়াছমিন পারভীন তিবরীজি বান্দরবানের জেলা প্রশাসক হিসেবে দক্ষতার সাথে দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন।জনপ্রশাসনের সাথে সাধারণ জনগণের দুরত্ব না রাখতে দুরদর্শী এই জেলা প্রশাসক প্রতি বুধবার গণশুনানিতে অংশ নিয়ে সাধারণ মানুষের কথা শুনছেন।সমস্যাগুলোকে দুর করে সম্ভাবনা কে বাস্তবায়নে তিনি নিরলসভাবে দিকনির্দেশনা প্রদান করছেন।জেলা প্রশাসক, বান্দরবানের এসব উদ্যোগ ও মানবিক সহায়তার বিষয়ে জেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো.কায়েসুর রহমান বলেন,একজন মানবিক জেলাপ্রশাসক হিসেবে সম্মানিত জেলা প্রশাসক ইয়াছমিন পারভীন তিবরীজি বান্দরবান পার্বত্য জেলার জনসেবায় অনন্য নজির স্থাপন করে যাচ্ছেন।জেলাপ্রশাসক মহোদয়ের গতিশীল নেতৃত্বে এগিয়ে যাবে সবুজ পাহাড়ের বান্দরবান।আলোকিত হবে এ জেলার মানুষ।শিক্ষার্থী তাহসিনও একদিন বান্দরবানের সম্মানিত জেলাপ্রশাসকের ন্যায় স্বাবলম্বী হয়ে জনসেবায় এগিয়ে আসবে এটাই বান্দরবান জেলা প্রশাসনের প্রত্যাশা।পরিবারের আর্থিক অবস্থা বিবেচনায় নিয়ে তাকে সহায়তা করা হয়েছে এবং আগামীতেও জেলার যেকোন মেধাবী গরীব ও অস্বচ্ছল শিক্ষার্থীকে উন্নত শিক্ষার সুযোগ প্রদানে জেলা প্রশাসন পাশে থাকবে।

ট্যাগ :

আরো সংবাদ

ফেইসবুকে আমরা



আর্কাইভ
February 2024
M T W T F S S
 12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
2728293031  
আলোচিত খবর

error: কি ব্যাপার মামা !!