শিরোনাম: বান্দরবানে ধর্ষনের দায়ে ১ জনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড রুমা উপজেলায় মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় নিহত ১ ৪০ হারানো মোবাইল ফোন উদ্ধার করলো ২ আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন স্মার্ট বান্দরবান-স্মার্ট ক্রীড়াঙ্গনঃ পুলিশ সুপার সৈকত শাহীনের উপহার পেলো কাবাডি খেলোয়াড়রা রিজিয়ন প্রীতি ক্রিকেট টুর্নামেন্ট-২৪ এর ফাইনাল খেলা ও পুরষ্কার বিতরন অনুষ্ঠিত বীর বাহাদুর স্কুল এন্ড কলেজের বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতার পুরষ্কার বিতরন অনুষ্ঠিত পাহাড়ের বৈচিত্র্য ও সৌন্দর্য্য বিশ্ব দরবারে তুলে ধরতে বান্দরবানে হয়ে গেলো ম্যারাথন দৌড় প্রতিযোগিতা যথাযথ ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে বান্দরবানে পালিত হলো অমর একুশে

বান্দরবানে কৃষক হত্যা দিবসের আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত


নিজস্ব সংবাদদাতা প্রকাশের সময় :১৫ মার্চ, ২০২২ ৭:৫১ : অপরাহ্ণ 305 Views

বান্দরবান জেলা কৃষকলীগের উদ্যোগে কৃষক হত্যা দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।মঙ্গলবার বিকেলে বান্দরবান জেলা আওয়ামীলীগ কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এই আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বান্দরবান জেলা আওয়ামীলীগ সহসভাপতি আব্দুর রহিম চৌধুরী।এসময় বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বান্দরবান জেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক লক্ষীপদ দাস।বান্দরবান জেলা কৃষকলীগ সভাপতি প্রজ্ঞাসার বড়ুয়া পাপনের সভাপতিত্বে আয়োজিত আলোচনা সভায় বান্দরবান জেলা শ্রমিকলীগের সাধারণ সম্পাদক মো.রফিকুল ইসলাম,বান্দরবান জেলা কৃষকলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শহিদুল আলম বাবুসহ জেলা কৃষকলীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা এসময় উপস্থিত ছিলেন।বান্দরবান জেলা কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক মো.সেলিম রেজার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন,বিএনপি-জামাত দেশের কৃষি খাতকে ধ্বংস করে দিয়েছিল।কৃষকের পাশে না দাড়িয়ে উল্টো কৃষকদেরকে হত্যা করেছে।বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের আমলে দেশে সার,কীটনাশক কালোবাজারে বিক্রি করা হয়। ১৯৯৫ সালের ১৫ মার্চ আন্দোলনরত কৃষকদের হত্যা করে তারা দেশের কৃষি খাতকে বিনষ্ট করে। লুটপাটের মাধ্যমে দেশের টাকা বিদেশে পাচার করে।নিজেরা অর্থবিত্তের মালিক হয়।এসব দেশবিরোধী,কৃষি ও স্বাধীনতা বিরোধীদের বাংলার কৃষক ভোটের মাধ্যমে জবাব দিয়ে রাষ্ট্রক্ষমতা থেকে বিতাড়িত করেছেন।জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের পথধরেই জননেত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশ এবং বাংলাদেশের কৃষিখাত এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন।কৃষকের কল্যানে আওয়ামী লীগ আগামীতে আরও নানা পদক্ষেপ গ্রহণ করবে।প্রসঙ্গত,১৯৯৫ সালের ১৫ মার্চ সারের দাবীতে আন্দোলনরত কৃষকদেরকে তৎকালীন বিএনপি-জামাত সরকারের নির্দেশে নির্বিচারে ১৮ জন কৃষককে গুলি করে হত্যা করা হয়।বাংলাদেশ কৃষক লীগ প্রতি বছর দিনটিকে কৃষক হত্যা দিবস হিসেবে পালন করে আসছে।

ট্যাগ :

আরো সংবাদ

ফেইসবুকে আমরা



আর্কাইভ
February 2024
M T W T F S S
 12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
2728293031  
আলোচিত খবর

error: কি ব্যাপার মামা !!