এই মাত্র পাওয়া :

শিরোনাম: আবাদ যোগ্য এক ইঞ্চি জমিও খালি না রাখতে আহবান জানালেন জেলা প্রশাসক ইয়াছমিন পারভীন তিবরীজি নাইক্ষ্যংছড়িতে উপজেলা নির্বাহী অফিসার এর হস্তক্ষেপে বাল্য বিয়ে পন্ড নাইক্ষ্যংছড়ি তে ইয়াবাসহ গ্রেফতার ১ ম্রো আবাসিক উচ্চবিদ্যালয় ৪২ তম বর্ষপূর্তিতে ১ম পুনর্মিলনী ও উন্নয়ন কাজের উদ্বোধন অনুষ্ঠিত ব্লাইন্ড ক্রিকেট টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপে জাতীয় দলের হয়ে খেলবে বান্দরবানের সুকেল তঞ্চঙ্গ্যা মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী হতে যাচ্ছেন আনোয়ার ইব্রাহিম লামার ফাইতং এ ইউনিয়ন যুবলীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত দেশের সর্বোচ্চ বিন্দু বা পর্বতশৃঙ্গ কোনটিঃ নির্ণয় করবে জরিপ অধিদপ্তর

চাঁদাবাজি বন্ধের দাবিতে লামায় অবরোধ কর্মসূচি পালন করলো ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর মুরুং সম্প্রদায়


প্রকাশের সময় :৬ মে, ২০১৭ ৯:০১ : অপরাহ্ণ 389 Views

লামা প্রতিনিধি (বান্দরবান):-জেএসএস ও ইউপিডিএফ সন্ত্রাসী কর্তৃক অপহরণ,গুম, খুন,চাঁদাবাজি বন্ধের দাবিতে আজ ভোর থেকে বিকেল পর্যন্ত লামায় অবরোধ কর্মসূচি পালন করেছে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী মুরুং সম্প্রদায়।পূর্বঘোষিত কর্মসূচি না হওয়ায় হঠাৎ করে অবরোধ পালনে ভোগান্তিতে পড়ে লামা,আলীকদম ও দূরদূরান্ত থেকে আসা লোকজন।আজ ভোর থেকে লামা উপজেলার বেশ কয়েকটি স্থানে মুরুং সম্প্রদায়ের লোকজন প্লেকার্ড ও পোষ্টার হাতে নিয়ে অবরোধ কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করতে দেখা যায়।ফাঁসিয়াখালী-লামা সড়কের ইয়াংছা,মিরিঞ্জা,লাইনঝিরি এবং লামা-সুয়ালক সড়কের কেয়াজুপাড়া বাজার,ডিসি রোড,সাপমারা ঝিরি,সরই ইউনিয়নের হাসনাভিটা,কিল্লাখোলা পয়েন্টে মুরুং জনগোষ্ঠীসহ বাঙ্গালী লোকজন অবরোধ কর্মসূচি পালন করে।মূল পিকেটিং স্থান ছিল লামা-আলীকদম-চকরিয়া সংযোগ সড়কের লাইনঝিরি নামক স্থানে।মুরুং সম্প্রদায়ের নেতা ইয়ং লক মুরুং ও চংবচ মুরুং এর নেতৃত্বে শতাধিক লোকজন এখানে অবস্থান করে।প্রত্যেক্ষদর্শীরা জানায়,ভোরে চট্টমেট্রো ট ১১-৩৪৫৯ ট্রাক গাড়িটি চকরিয়া যাওয়ার পথে পিকেটাররা গাড়ির চাকা খুলে ফেলে।রাস্তার মধ্যে গাড়িটি এমনভাবে আড়াআড়ি করে রাখে কোন গাড়ি এপার থেকে ওপারে যাওয়ার সুযোগ ছিল না।ভোগান্তির শিকার লোকজন বলেন,পিকেটারদের শক্ত অবস্থান না থাকলেও ট্রাক গাড়িটির কারণে তাদের অবরোধ সফল হয়েছে।অপরদিকে ঐক্য ন্যাপের সভাপতি পংকজ ভট্টাচার্যের শনিবার লামা আগমনের কথা থাকলেও পিকেটারদের শক্ত অবস্থানের কারণে তাদের ফিরে যেতে হয়েছে বলে জানা যায়।বিভিন্ন স্থানে অবরোধ পালন কালে পিকেটাররা নানান স্লোগান দিতে দেখা যায়। ১২ জাতির এক দাবি জেএসএস সন্ত্রাসী মুক্ত পার্বত্য ভূমি। জেএসএস সন্ত্রাসী হুশিয়ার-সাবধান।ইউপিডিএফ সন্ত্রাসীদের কালো হাত ভেঙে দাও গুড়িয়ে দাও।৪০ হাজার বাঙ্গালী হত্যাকারী সন্তু লারমার ফাঁসি চাই। আওয়ামী লীগ নেতা মংপ্র মার্মা খুনের বিচার চাই, করতে হবে। অপরদিকে বিভিন্ন পয়েন্টে নিরাপত্তা জোরদারের জন্য পুলিশ বাহিনীর টহল ও অবস্থান লক্ষ্য করা যায়।

ট্যাগ :

আরো সংবাদ

ফেইসবুকে আমরা



আর্কাইভ
November 2022
M T W T F S S
1234567
891011121314
15161718192021
22232425262728
293031  
আলোচিত খবর

error: কি ব্যাপার মামা !!