আজকে ১৬ ফেব্রুয়ারী, ২০১৯ | | সময়ঃ-১২:০১ অপরাহ্ন    

Home » বিনোদন

বিনোদন

জাজ কর্ণধার আবদুল আজিজের ৯১৯ কোটি টাকা পাচার

বান্দরবান অফিসঃ- জাজ মাল্টিমিডিয়ার কর্ণধার আবদুল আজিজের মালিকানাধীন ক্রিসেন্ট লেদার প্রোডাক্টস লিমিটেড ও ক্রিসেন্ট ট্যানারিজ লিমিটেডের চেয়ারম্যান এম এ কাদেরকে আটক করা হয়েছে। গতকাল বিকেলে রাজধানীর কাকরাইল থেকে তাকে আটক করা হয়।

ক্রিসেন্ট গ্রæপের তিনটি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে প্রায় ৯১৯ কোটি টাকা পাচারের প্রমাণ পাওয়ায় তাকে আটক করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন এনবিআর চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন ভুইয়া। গতকাল বিকেলে এনবিআর সম্মেলন কক্ষে এক জরুরি সংবাদ সম্মেলনে তিনি সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, রাজধানীর চকবাজার মডেল থানায় শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদফতর আবদুল আজিজসহ ১৭ জনের বিরুদ্ধে তিনটি মামলা দায়ের করে। মামলা নং যথাক্রমে-৫৪, ৫৫ ও ৫৬। মামলায় আবদুল আজিজ ও জনতা ব্যাংক কর্মকর্তাসহ ১৭ জনকে আসামি করা হয়েছে। এর মধ্যে ৫৪ ও ৫৬ মামলার অন্যতম আসামি ক্রিসেন্ট লেদার ও ক্রিসেন্ট ট্যানারিজের চেয়ারম্যান এম এ কাদেরকে কাকরাইল থেকে আটক করা হয়।

শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদফতরের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সম্প্রতি বেশ কিছু প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে মানি লন্ডারিংয়ের বিষয়ে অনুসন্ধান কার্যক্রম সম্পন্ন হয়েছে। এর মধ্যে ক্রিসেন্ট লেদার প্রোডাক্টস, রিমেক্স ফুটওয়্যার ও ক্রিসেন্ট ট্যানারিজের বিরুদ্ধে যথাক্রমে ৪২২.৪৬ কোটি টাকা, ৪৮১.২৬ কোটি টাকা ও ১৫.৮৪ কোটি টাকা অর্থাৎ সর্বমোট ৯১৯.৫৬ কোটি টাকা পাচারের প্রমাণ পাওয়া গেছে।

এই অবৈধ কাজের সাথে জড়িত থাকায় শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদফতর কর্তৃক মানি লন্ডারিং প্রতিরোধ আইন, ২০১২ (সংশোধিত ২০১৫) অনুযায়ী রিমেক্স ফুটওয়্যার লিমিটেডের চেয়ারম্যান আব্দুল আজিজ ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক মিসেস লিটুল জাহান (মিরা) এবং অন্য দুটি প্রতিষ্ঠান ক্রিসেন্ট লেদার প্রোডাক্টস ও ক্রিসেন্ট ট্যানারিজের চেয়ারম্যান এম এ কাদের এবং ব্যবস্থাপনা পরিচালক মিসেস সুলতানা বেগম (মনি) ও জনতা ব্যাংকের সংশ্লিষ্ট ১৩ জন কর্মকর্তাকে আসামি করে মামলা করা হয়েছে।

৩১ ডিসেম্বর বিয়ে করেছি: সালমা

নিউজ ডেস্কঃ- সংগীতশিল্পী মৌসুমী আক্তার সালমা আবারও বিয়ে করেছেন। গত ৩১ ডিসেম্বর লোকগানের জনপ্রিয় এই শিল্পী পারিবারিকভাবে বিয়ে করেন ময়মনসিংহ হালুয়াঘাটের ছেলে সানাউল্লাহ নূরে সাগরকে। যিনি ঢাকা জজ কোর্টের এডভোকেট। বর্তমানে লন্ডনে ‘বার অ্যাট ল’ করছেন।

আজ (বৃহস্পতিবার) সন্ধ্যায় রাজধানীর একটি রেস্তোরাঁয় ঘনিষ্ঠ সংবাদকর্মীদের ডেকে সালমা তার দ্বিতীয় বিয়ের খবর জানান। তিনি বলেন, প্রেম নয়, দুই পরিবারের দেখাদেখির ভিত্তিতে বিয়ে হয়েছে।

৩১ ডিসেম্বর সালমার বাসায় বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা শেষে তার স্বামী সানাউল্লাহ নূরে সাগর আবার ফিরে গেছেন লন্ডনে। সালমা জানান, চারমাস পর তার স্বামী ‘বার অ্যাট ল’ শেষ করে দেশে ফিরবেন।

লালনকন্যা খ্যাত এই কণ্ঠশিল্পী বলেন, আমার স্বামী দেশে ফিরলে বিয়ের সংবর্ধনার আয়োজন করবো, তখন সবার দোয়া নেব।

সালমা বলেন, বিয়ের আগে আমি স্বামীর সাথে কথা বলেছি। শুনেছি, আমার গান পছন্দ করে কিনা! এতে তার কোনো আপত্তি নেই। তার পরিবারের সাথেও আলাপ করেছি। তাদের মধ্যেও আমার গান নিয়ে আগ্রহ দেখেছি। সে নিজেও আবার বাবার সাথে কথা বলেছে।

সালমা মনে করেন, পরষ্পর একসাথে থাকতে হলে দুজনের মধ্যে বিশ্বাস, ভালোবাসা, শ্রদ্ধাবোধ থাকা দরকার। এই সবকিছুর সমন্বয় হলে দাম্পত্য জীবন সুখের হয়। এসবগুলো সালমা তার স্বামী সাগরের মধ্যে দেখেছেন।

কুষ্টিয়ার মেয়ে মৌসুমি আক্তার সালমা সংগীত রিয়্যালিটি শো ‘ক্লোজআপ– তোমাকেই খুঁজছে বাংলাদেশ’-এর দ্বিতীয় সিরিজের বিজয়ী ছিলেন। এরপর কয়েকটি লোকগীতি দিয়ে সালমা সারাদেশে ব্যাপক পরিচিতি পান। ২০১১ সালে পারিবারিকভাবে শিবলী সাদিককে বিয়ে করেন সালমা।

শিবলী সংগীত পরিবারের ছেলে হলেও পিতার উত্তরসূরি হিসেবে রাজনীতিতে যুক্ত হন। ২০১২ সালে ১ জানুয়ারি তাদের সংসারে কন্যা সন্তান স্নেহার জন্ম। সাংসারিক দ্বন্দ্বের কারণে ২০১৬ সালের ২০ নভেম্বরে তাদের বিচ্ছেদ হয়। সালমার মেয়ে স্নেহা তার বাবা শিবলীর কাছে থাকে বলে জানা যায়।

সংরিক্ষত আসনে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করলেন জ্যোতি

সিএইচটি টাইমস,বান্দরবানঃ- একাদশ জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত আসনে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করলেন অভিনেত্রী জ্যোতিকা জ্যোতি।

মঙ্গলবার বিকেলে রাজধানীর ধানমণ্ডি আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয় থেকে মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ করেন টেলিভিশন ও চলচ্চিত্রের এ অভিনেত্রী।

জ্যোতিকা জ্যোতির জন্মস্থান ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলার সহনাটি ইউপির হতিয়র গ্রামে। তিনি পড়াশুনা করেছেন ইংরেজি সাহিত্যে। তিনি সবার দোয়া ও সমর্থন কামনা করেছেন।

মনোনয়ন ফরম সংগ্রহের সময় জ্যোতিকা জ্যোতির সঙ্গে ছিলেন স্থানীয় যুবলীগ নেতা নাজমুল হাছান ডালাছ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা আব্দুল্লাহ আল মামুন, ছাত্রলীগ নেতা আশরাফুজ্জামান গোলাপসহ আরো অনেকেই।

আনকাট সেন্সর পেলো মিস্টার বাংলাদেশ

বান্দরবান অফিসঃ- দেশে যখন জঙ্গি তৎপরতা আবার মাথা চাড়া দিয়ে উঠেছে ঠিক সেই সময়ে আবু আখতার উল ইমানের পরিচালনায় জঙ্গিবিরোধী চলচিত্র ‘মিস্টার বাংলাদেশ’সেন্সর বোর্ড থেকে আনকাট সেন্সর পেলো। ছবিটিতে অভিনয় করেছেন লাক্স সুন্দরি শানারেই দেবী শানু। তার বিপরীতে দেখা যাবে খিজির হায়াত খানকে।

সেন্সর বোর্ডের সদস্যদের মতে এটি একটি সময়উপযোগী চলচ্চিত্র। যা কিনা বাংলাদেশের দর্শকদের দেখা উচিত। সব কিছু ঠিক থাক থাকলে আগামী মাসের যেকোনো দিন এই ছবিটি মুক্তি পাবে।

মুলত ‘মিস্টার বাংলাদেশ’-এর গল্প আবর্তিত হয়েছে জঙ্গিবাদ নিয়ে। ৪০ সেকেন্ডের এই মোশন পোস্টারের শুরুতেই দেখা যায় হলি আর্টিজানে হামলার ঘটনার পত্রিকার কাটিং। যেখানে ডানে হামলাকারীদের অন্যতম নিবরাসকেও দেখা যায়। আর সংবাদের ভেতর থেকে বেরিয়ে আসবে ‘মিস্টার বাংলাদেশ’। এ সময় হলি আর্টিজানের জঙ্গি হামলায় নিহত হওয়া ইশরাত আকন্দ মিস্টার বাংলাদেশের মাঝে মিশে যাবে। দেখা যাবে এক বিদেশিনীকেও। সব মিলিয়ে উত্তেজনা ছড়ালো এ মোশন পোস্টার।

মোশন পোস্টার সম্পর্কে খিজির হায়াত খান বলেন, হলি আর্টিজানের হামলায় আমার বান্ধবী ইশরাত আকন্দের মৃত্যু হয়। আজ তার জন্মদিনে এটিই ছিল আমার উপহার। একজন সাংবাদিক হয়ে কীভাবে জঙ্গি হামলার বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ান এবং কীভাবে তা প্রতিরোধ করেন এই চলচ্চিত্রে ফুটে উঠবে জানালেন এ অভিনেতা।

পোস্টার সম্পর্কে খিজির হায়াত বলেন, ভেবেছিলাম আরো পরে পোস্টারটা সবার জন্য উন্মুক্ত করবো, কিন্তু এজ অ্যা ফিল্মমেকার ইউ হ্যাভ টু বিলিভ ইউওর ইন্স্টিক্ট, এন্ড আই এম অ্যা ফিল্মমেকার। মিস্টার বাংলাদেশের ফার্স্ট লুকটা সিনেমাপ্রেমীদের জন্য আগাম দেয়া হলো। সবাই আলোচনা-প্রশংসা করছেন, আমাদের ভালো কাজের আগ্রহটা আরো বাড়ছে তাতে।

বড় পর্দায় অভিষেকের অপেক্ষায় থাকা শানু বলেন, আগে ভালো গল্প না পাওয়ায় কাজ করা হয়নি। এবার এমন এক ইস্যু নিয়ে গল্প পেলাম যা শুধু আমাদের জন্যে নয় গোটা বিশ্বের জন্যে হুমকির। এতে আমি কুমু চরিত্রে অভিনয় করেছি। চরিত্রটি ফুটিয়ে তোলার চেষ্টা করেছি। আশা করি এই ছবি থেকে মানুষ কিছু জানতে পারবে।

নির্মাতা বলেন, এই পোস্টারে জড়িয়ে আছে আমাদের সিনেমার সব শক্তি আর ‘মিস্টার বাংলাদেশ’র মূল চেতনা। জাতীয় কবি নজরুলের বিদ্রোহী কবিতার মতোই মিস্টার বাংলাদেশ একজন বিদ্রোহী, জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে একজন বিদ্রোহী।

ছবিতে ভিলেন চরিত্রে অভিনয় করেছেন বর্তমান সময়ের অন্যতম আলোচিত ভিলেন টাইগার রবি। শুধু তাই নয় এই চলচ্চিত্রের মাধ্যমেই বড় পর্দায় অভিষেক হচ্ছে ইউটিউব সেলিব্রিটি সোলাইমান সুখন ও শামীম হাসান সরকারের।

ও প্রিয়া তুমি কোথায় খ্যাত শিল্পী আসিফ গ্রেফতার

সিএইচটি টাইমস নিউজ ডেস্কঃ- তথ্যপ্রযুক্তি আইনে দায়ের করা একটি মামলায় গ্রেফতার হয়েছেন কণ্ঠশিল্পী আসিফ আকবর।মঙ্গলবার দিবাগত রাত দেড়টায় পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) একটি টিম তাকে গ্রেফতার করে। সিআইডির বিশেষ পুলিশ সুপার (এসএস) মোল্যা নজরুল ইসলাম বাংলা ট্রিবিউনকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

মোল্যা নজরুল ইসলাম জানান, সুরকার ও কণ্ঠশিল্পী শফিক তুহিনের দায়ের করা তেজগাঁও থানার একটি মামলায় তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মামলা নম্বর ১৪। তাকে আদালতে সোপর্দ করা হবে।’

সোমবার সন্ধ্যায় (৪ জুন) দায়ের করা এ মামলায় আসিফ আকবর ছাড়াও আরও ৪/৫ জন অজ্ঞাত আসামি রয়েছে বলেও জানায় পুলিশ।

আসিফ আকবরকে নিযে যাচ্ছে সিআইডি
শফিক তুহিন এজাহারে অভিযোগ করেছেন, গত ১ জুন আনুমানিক রাত ৯টার দিকে চ্যানেল ২৪-এর সার্চ লাইট নামের অনুসন্ধানী প্রতিবেদনের মাধ্যমে তিনি জানতে পারেন, আসিফ আকবর তার অনুমতি ছাড়াই তার সংগীতকর্মসহ অন্যান্য গীতিকার, সুরকার ও শিল্পীদের ৬১৭টি সবার অজান্তে বিক্রি করেছে। পরে তিনি বিভিন্ন মাধ্যমে যোগাযোগ করে জানতে পারেন, আসিফ আকবর আর্ব এন্টারটেইনমেন্টের চেয়ারম্যান হিসেবে অন মোবাইল প্রা. লি. কনটেন্ট প্রোভাইডার, নেক্সনেট লি. গাক মিডিয়া বাংলাদেশ লি. ও অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে গানগুলো ডিজিটাল রূপান্তরের মাধ্যমে ট্রু-টিউন, ওয়াপ-২, রিংটোন, পিআরবিটি, ফুলট্রেক, ওয়াল পেপার, অ্যানিমেশন, থ্রি-জি কন্টেন্ট ইত্যাদি হিসেবে বাণিজ্যিক ব্যবহার করে অসাধুভাবে ও প্রতারণার মাধ্যমে বিপুল অর্থ উপার্জন করেছে।

তল্লাশি করছেন সিআইডির কর্মকর্তারা
এজাহারে তিনি আরও উল্লেখ করেন, পরে ওই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে তিনি গত ২ জুন রাত ২টা ২২ মিনিটে তার ব্যক্তিগত ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে অনুমোদন ছাড়া গান বিক্রির এই ঘটনা উল্লেখ করে একটি পোস্ট দেন। তার ওই পোস্টের নিচে আসিফ আকবর নিজের একটি অ্যাকাউন্ট থেকে অশালীন মন্তব্য ও হুমকি দেন। পরের দিন রাত ৯ টা ৫৯ মিনিটে আসিফ আকবর তার প্রায় ৩২ লাখ লাইকার সমৃদ্ধ ভেরিফাইড ফেসবুক পেজে লাইভে আসেন। ৫৪ মিনিট ৩৪ সেকেন্ড লাইভ ভিডিওর ২২ মিনিট থেকে তার বিরুদ্ধে অবমাননাকর, অশালীন ও মিথ্যা-বানোয়াট বক্তব্য দেন। ভিডিওতে আসিফ আকবর তাকে (শফিক তুহিন) শায়েস্তা করবেন এ কথা বলার পাশাপাশি ভক্তদের উদ্দেশে বলেন, তাকে যেখানেই পাবেন সেখানেই প্রতিহত করবেন। এই নির্দেশনা পেয়ে আসিফ আকবরের ভক্তরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তাকে হত্যার হুমকি দেয়। আসিফ আকবরের এই বক্তব্য লাখ লাখ মানুষ দেখেছে। তিনি উসকানি দিয়েছেন। এতে তার (সফিক তুহিন) মানহানি হয়েছে।

এজাহারে শফিক তুহিন আরও উল্লেখ করেন, বিষয়টি সংগীতাঙ্গনের সুপরিচিত শিল্পী, সুরকার ও গীতিকার প্রীতম আহমেদসহ অনেকেই জানেন।

ইসরায়েলের কনসার্ট বাতিল করলেন শাকিরা

সিএইচটি টাইমস নিউজ ডেস্কঃ- কলম্বিয়ান পপ তারকা শাকিরা এই বছর ইসরায়েলের তেল আবিবে কনসার্টে অংশগ্রহণ করবেন না। বয়কট, ডাইভেস্টমেন্ট অ্যান্ড স্যাঙ্কশনস (বিডিএস) আন্দোলনের পক্ষ থেকে চাপের মুখে শাকিরা এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। বুধবার মধ্যপ্রাচ্যবিষয়ক সংবাদমাধ্যম মিডল ইস্ট মনিটর এখবর জানিয়েছে।

অ্যাকাডেমিক অ্যান্ড কালচারাল বয়সক অব ইসরায়েল (পিএসিবিআই) নামের ফিলিস্তিনি সংগঠন এক বিবৃতিতে তেল আবিবে কোনও কনসার্টে অংশগ্রহণ না করার যে সিদ্ধান্ত শাকিরা নিয়েছেন সেটাকে স্বাগত জানিয়েছে। সংস্থাটি জানায়, শাকিরাকে নিয়ে কনসার্ট আয়োজনের মধ্য দিয়ে ইসরায়েল সর্বশেষ গাজায় হত্যাযজ্ঞ আড়াল করতে চাইছে।

বিবৃবিতে পিএসিবিআই আরও জানায়, গাজা, লেবানন, কলম্বিয়া ও যুক্তরাষ্ট্রের অনেক আন্দোলন ও সাংস্কৃতিক কর্মী শাকিরাকে এই তেল আবিবের কনসার্ট বাতিলের আহ্বান জানিয়েছিলেন।

গত সপ্তাহে ফিলিস্তিনি সাংস্কৃতিক ইনস্টিটিউট ও স্থানীয় প্রশাসন গ্র্যামি জয়ী শিল্পী শাকিরাকে কনসার্টটি বাতিলের আহ্বান জানিয়েছিল।

মে মাসের শুরুতে হাদাশট নামের সংবাদমাধ্যম জানায়, তেল আবিবের ইয়ারকন পার্কে ৯ জুলাই কনসার্ট করবেন শাকিরা। এরপরই বিডিএস আন্দোলনের পক্ষ থেকে শাকিরাকে কনসার্ট বাতিলের আহ্বান জানানো হয়।

ঈদ আনন্দ রাঙাতে এলো আসিফ-জেমির নতুন গান দুই দুবার

সিএইচটি টাইমস নিউজ ডেস্কঃ- রোজার মাস ফুরালেই আসে ঈদ। আগেভাগেই তার আমেজটা শুরু হয়। ঈদের আনন্দকে ভক্তদের মাঝে ছড়িয়ে দিতে নিত্যনতুন গান নিয়ে হাজির হন শিল্পীরা। সেই ধারাবাহিতায় ঈদের আমেজ ছড়িয়ে দিতেই আজ বৃহস্পতিবার ইউটিউবে প্রকাশ করা হলো ‘বাংলা গানের যুবরাজ’ খ্যাত সংগীতশিল্পী আসিফ আকবর ও কলকাতার জেমি ইয়াসমিনের গাওয়া নতুন গান ‘দুই দুবার’।

প্রযোজনা সংস্থা ‘নিউ ভিশন বিডি’ এর অফিসিয়াল ইউটিউব চ্যানেলে গানটির মিউজিক ভিডিও প্রকাশ করা হয়েছে। কলকাতার শ্রী প্রীতমের সুর ও সংগীতে গানটির কথা লিখেছেন বাংলাদেশের গীতিকার সুদীপ কুমার দীপ। গানটির মিউজিক ভিডিওতে মডেল হিসেবে আসিফ ইমরোজ-আফ্রির পাশাপাশি দেখা যাবে গানটির সংগীতশিল্পী আসিফ আকবর ও জেমি ইয়াসমিনকেও। গানটির কোরিওগ্রাফিতে ছিলেন নৃত্য পরিচালক হাবিব। আর এর সার্বিক পরিকল্পনা ও তত্ত্বাবধানে ছিল নিউ ভিশন বিডি ক্রিয়েটিভ টিম।

নতুন এই গান প্রসঙ্গে আসিফ আকবর বললেন,‌‌ ‘ভিন্ন স্বাদের একটি গান হয়েছে। প্রীতমের সঙ্গে আগেও কাজ করেছি, এবার জেমির সঙ্গে প্রথম কাজ করলাম। ওর কণ্ঠটাও বেশ সুন্দর। গানটির মিউজিক ভিডিওটিও ভালো হয়েছে। আশা করছি, ‘দুই দুবার’ গানটি সকলের ভালো লাগবে। আর নিউ ভিশন বিডির জন্য রইলো শুভ কামনা।’

গানটির সুরকার ও সংগীত পরিচালক শ্রী প্রীতম বললেন,‌‌ ‘আসিফ ভাইয়ের সাথে কাজ করার মজাটাই আলাদা। উনার জন্য যে ধরনের বা সুরের গানই করি না কেন উনি ঠিকই গানটি নিজের মতো করে গেয়ে তার সৌন্দর্য আরও বাড়িয়ে দেন। আর জেমি বেশ প্রতিশ্রুতিশীল শিল্পী। এর আগেও বাংলাদেশের ছবি ‘আমি নেতা হবো’তে ওর গাওয়া ‘চুম্মা’ গানটি বাংলাদেশের শ্রোতারা গ্রহণ করেছিলেন ভালোভাবে। আশা করছি আসিফ ভাইয়ের সাথে তার এই দ্বৈত গানটিও শ্রোতারা সাদরে গ্রহণ করবেন। আর এই গানটির প্রযোজনা সংস্থা নিউ ভিশন বিডির জন্য রইলো শুভ কামনা।’

প্রযোজনা সংস্থা নিউ ভিশন বিডির কর্ণধার ফরমান আলী বললেন, ‘নিউ ভিশন বিডি সবসময় দর্শক-শ্রোতাদের কথা মাথায় রেখেই কাজ করে। আসিফ আকবর-জেমির গানটিও দর্শকদের ঈদ আনন্দের কথা মাথায় রেখেই করা। আশা করছি আমাদের এই প্রচেষ্টা শ্রোতা-দর্শকদের ভালো লাগবে।’

বাদ জোহর তাজিনের জানাজা ও দাফন

সিএইচটি নিউজ ডেস্কঃ- বনানী কবরস্থানে বাবার কবরে শায়িত হবেন অভিনেত্রী তাজিন আহমেদ। বুধবার বাদ জোহর তার জানাজা হবে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন অভিনয় শিল্পী সংঘের যুগ্ম সম্পাদক আনিসুর রহমান মিলন।

তিনি জানান, বুধবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে উত্তরার আনন্দ বাড়ি শুটিং স্পটে রাখা হয় তাজিন আহমেদের মরদেহ। সেখানে সহকর্মীরা শেষবারের মতো দেখতে আসেন তাকে। বেলা ১২টা পর্যন্ত মরদেহ এখানেই রাখা হবে।

গুলশানের আজাদ মসজিদে বাদ জোহর জানাজার পর বনানী কবরস্থানে বাবার কবরে তাকে দাফন করা হবে।

মঙ্গলবার দুপুরে তাজিনের হার্ট অ্যাটাক হয়। এরপর হাসপাতালে নেওয়া হয়। বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে উত্তরার রিজেন্ট হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

পরে সন্ধ্যায় উত্তরার ৭ নম্বর সেক্টরের একটি মসজিদে গোসল শেষে মরদেহ উত্তরার রিজেন্ট হাসপাতালে রাখা হয়। সেখান থেকে রাত ১০টায় কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের হিমঘরে নিয়ে যাওয়া হয়।

 

তাজিন আহমেদ ছিলেন যেন বিষাদের রাজকন্যা …!!!

সিএইচটি নিউজ ডেস্কঃ-না ফেরার দেশে চলে গেলেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী তাজিন আহমেদ।আর কখনো হাসবেন না চোখ বুজে আসা সেই হাসি।তার চঞ্চলতা মাখা বাক্যালাপে মুগ্ধতাও ছড়াবে না আর। অভিনয় নিয়ে কখনোই আর দর্শকের মনে দোলা দেবেন না তিনি।এ যাত্রা তার,চিরতরে।মাত্র ৪৩ বছর বয়সেই নিভে গেল প্রাণোচ্ছ্বল এই অভিনেত্রীর জীবন প্রদীপ।

তবে তাজিন থেকে যাবেন ভক্তদের মনে। তার স্মৃতিগুলো থেকে যাবে প্রিয়জনদের অন্তরে।ঠিক তেমনটাই যেন প্রমাণ দিতে চাইছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক।তাজিনের মৃত্যুর পর থেকেেই ফেসবুকে দেখা যাচ্ছে তাকে নিয়ে,তার স্মৃতি নিয়ে,তার সঙ্গে ছবি পোস্ট করে,তার বিদেহি আত্মার শান্তি কামনা করে স্ট্যাটাস দিচ্ছেন অনেকেই।ফেসবুক যেন হয়ে গেছে তাজিন হারানো শোকবই।আর সেইসব শোক বানীতে তাজিনের কাছের মানুষরা আক্ষেপ করলেন তার শেষ জীবনের একাকীত্ব আর বিষাদময় দিনগুলোর জন্য।এইসব লেখা পড়ে পড়ে মনে হয়, তাজিন আহমেদ বুঝি বিষাদেরই রাজকন্যা ছিলেন।

অভিনয় শিল্পী সংঘের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রওনক হাসান লিখেছেন, ‘অভিনেত্রী তাজিন আহমেদ হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে আমাদের ছেড়ে চলে গেছেন।(হার্ট ফেইলর থেকে ম্যাসিভ কার্ডিয়াক এটাক ) ইন্নালিল্লাহে ওয়া ইন্না ইলাহে রাজেউন।তার বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করছি।’

অভিনেত্রী শাহনাজ খুশি তাজিনের সঙ্গে একটি ছবি পোস্ট করে লিখেছেন, ‘তাজিন! কোনভাবেই বিশ্বাস করতে পারছি না!এমন করে সব শেষ হয়ে গেল? এই তো সেদিন, সর্বশেষ বিদেশীপাড়ার শুটিং সেটে সারাদিন কত কথা হলো!!!!!! আমি মনযোগ দিয়ে শুনেছি তোর সব কথা। মনের সাথে, সময়ের সাথে অনেক কষ্ট করেছিস শেষদিন গুলো। যেখানে গেলি, সেখানে যেন শান্তি হয়! এভাবেই সব উজ্জ্বল তারা গুলি একদিন আলোহীন ফানুস হয়ে মিলিয়ে যাবে দূর আকাশে……….!’

অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরী লিখেছেন, ‌‘সব এখন স্মৃতি….এভাবেই হারিয়ে গেলে তাজিন আপু……ভালো থেকো ওপারে…..আমরা আসলে তোমার জন্য কিছুই করতে পারিনি……’

জনপ্রিয় উপস্থাপক আনজাম মাসুদ লিখেছেন, ‘জনপ্রিয় অভিনেত্রী তাজিন আহমেদ এর অকাল মৃত্যুতে স্বাধীনতা সাংস্কৃতিক পরিষদ গভীর শোক প্রকাশ করছে। সংগঠনের সভাপতি জনাব চয়ন ইসলাম এবং সাধারণ সম্পাদক আসলাম শিহির এক বিবৃতিতে মরহুমার বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।। মহান আল্লাহতালা তাঁকে জান্নাত নসিব করুন। আমিন।’

এই অভিনেত্রীর সঙ্গে ছবি পোস্ট করে নির্মাতা মাসুদ সেজান লিখেছেন, ‘এইতো সেদিন, কি জীবন্ত ছবি। আহা, আমাদের যৎসামান্য জীবন! তাজিন, তোমার এই অকস্মাৎ মৃত্যুতে আমি এতটা অবাক হয়েছি, কত কিছুই বলার আছে, অথচ আমি নির্বাক… যেখানেই যাও, এবার একটু ভালো থাকো…’

প্রখ্যাত নাট্যকার মাসুম রেজা তাজিন আহমেদের সঙ্গে ছবি পোস্ট করে লিখেছেন, ‘এই মিষ্টি হাসিটা তাজিন আর হাসবে না.. ও চলে গেছে আমাদের ছেড়ে.. হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে চিরদিনের জন্যে চলে গেছে তাজিন.. ভালো থেকো তাজিন…..’

চলচ্চিত্র নির্মাতা মোস্তফা সরোয়ার ফারুকী লিখেছেন, ‘এ কী দুঃসংবাদ শুনলাম। স্রষ্ঠা আপনার আত্মাকে শান্তি দান করুন অভিনেত্রী তাজিন….’

নির্মাতা চয়নিক চৌধুরী লিখেছেন, ‘তাজিন আহমেদ আর নেই। এমন কী কথা ছিলো। আমার প্রচার হওয়া প্রথম নাটক ‘এক জীবন’র অভিনেত্রী।’

অভিনেত্রী রুনা খান লিখেছেন, ‌‘তাজিন আপু..আহারে তাজিন আপু! এবার শান্তি হোক,আত্মার শান্তি হোক।’

চিত্রনায়ক কায়েস আরজু লিখেছেন, ‘আমাদের প্রিয় অভিনেত্রী তাজিন আহমেদ আর নেই। ইন্নালিল্লাহ …..রাজিউন।’

চিত্রনায়ক সিয়াম লিখেছেন, ‘আমাদের প্রিয় তাজিন আহমেদ আপু আর নেই। তার বিদেহি আত্মার শান্তি কামনা করছি….’

অভিনেত্রী নাবিলা ইসলাম লিখেছেন, ‘অভিনেত্রী তাজিন আহমেদ হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে আমাদের ছেড়ে চলে গেছেন । ইন্নালিল্লাহে ওয়া ইন্না ইলাহে রাজেউন । তাঁর বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করছি ।।।’

অবশেষে চলেই গেলেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী তাজিন

সিএইচটি নিউজ ডেস্কঃ-হার্ট অ্যাটাক করে না ফেরার দেশে পাড়ি জমালেন ছোটপর্দার জনপ্রিয় অভিনেত্রী তাজিন আহমেদ। আজ মঙ্গলবার দুপুরে হার্ট অ্যাটাক করলে দ্রুত তাকে উত্তরার রিজেন্ট হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়। তার অসুস্থতার খবর শুনে ছুটে আসেন তার সহকর্মীরা। তবে তাকে বাঁচানো গেল না। কোনো মায়াই আর তাকে আটকে রাখতে পারেনি। অবশেষে সব বাঁধন ছিন্ন করে বিকেল ৪টা ৩৫ মিনিটে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তাজিন আহমেদ।

তাজিনের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছেন অভিনয় শিল্পী সংঘের সাধারণ সম্পাদক আহসান হাবিব নাসিম। তিনি জাগো নিউজকে বলেন, ‌‘আমরা ৩টার দিকে খবরটি পেয়েছি তাজিন আহমেদ হার্ট অ্যাটাক করেছেন। যখন তার হার্ট অ্যাটাক হয় তখন বাসায় কেবলমাত্র একজন মেকাপ আর্টিস্ট ছিলেন। উনি তাজিনের সঙ্গেই থাকতেন। তিনিই তাজিনকে উত্তরার রিজেন্ট হাসপাতালে নিয়ে আসেন। তার অবস্থা খুবই মুমূর্ষু ছিল।’

নাসিম আরও জানান, ‘তাকে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়েছিল। কিন্তু শেষ রক্ষা হয়নি। আমাদের সবাইকে ছেড়ে না ফেরার দেশে চলে গেলেন তাজিন। আমরা তার বিদেহী আত্মার শান্তি কামনা করছি।’

তিনি আরও জানান, সন্ধ্যা পর্যন্ত তাজিন আহমেদের মরদেহ উত্তরার রিজেন্ট হাসপাতালেই রাখা হবে। ইফতারের পর সিদ্ধান্ত নেয়া হবে তার মরদেহ কখন, কোথায় জানাজা ও দাফনের ব্যবস্থা করা হবে।

এরই মধ্যে তাজিনের আত্মীয়দের খবর দেয়া হয়েছে। আর প্রিয় সহকর্মীর মৃত্যুর খবর পেয়েই শিল্পীরা ছুটে আসছেন তাজিনকে দেখতে। এই মুহূর্তে হাসপাতলে নাসিম ছাড়াও তাজিনের পাশে রয়েছেন রওনক হাসান, জাকিয়া বারী মম, হুমায়রা হিমু ও আরও অনেকে।

নাসিম বলেন, ‘তাজিন অনেকদিন ধরেই একা বসবাস করে আসছেন। তার সঙ্গে একজন মেকাপ আর্টিস্ট থাকেন। তিনি তাজিনের দেখাশোনা করতেন। তিনি হৃদরোগে আক্রান্ত ছিলেন এমনটা আগে শুনিনি। হার্ট অ্যাটাকে তার মৃত্যুু একেবারে হতবাক করে দিয়েছে আমাদের। দেশবাসীর কাছে তাজিনের বিদেহি আত্মার জন্য দোয়া চাই।’

প্রসঙ্গত, বিটিভির সোনালি দিনগুলোতে তাজিন আহমেদের উত্থান। জাহিদ হাসান, আজিজুল হাকিম, আজাদ আবুল কালাম, তৌকীর আহমেদ, টনি ডায়েসদের সঙ্গে জুটি বেঁধে নিয়মিতই তিনি হাজির হতেন টিভি দর্শকদের সামনে। অভিনয়ের পাশাপাশি মডেলিংয়েও সুনাম কামিয়েছেন তিনি। খুব ভালো তাজিন আহমেদের লেখার হাতও। অনেকদিন যুক্ত ছিলেন সাংবাদিকতার সঙ্গে।