আজকে ২৬ এপ্রিল, ২০১৯ | | সময়ঃ-০২:২৯ অপরাহ্ন    

Home » ক্রীড়াঙ্গণ

ক্রীড়াঙ্গণ

বান্দরবানে বলী খেলা অনুষ্ঠিত

নিউজ ডেস্কঃ-  নববর্ষের আগমনকে ঘিরে বান্দরবানে বলী খেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে।আজ রোববার (১৪ এপ্রিল) বিকেলে পার্বত্য জেলা পরিষদের আয়োজনে শহরের রাজার মাঠে এই খেলা অনুষ্ঠিত হয়। এসময় বলী খেলায় অংশ নিতে দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে বলীরা জড়ো হয়, আর বলী খেলা উপভোগ করতে রাজার মাঠে ঢল নামে হাজারো জনতার ঢল। বাদ্যযন্ত্রের সুর আর সকলের করতালির মধ্য দিয়ে চলে বলীদের যুদ্ধ।

এসময় বিভিন্ন জেলার অর্ধশত বলী এই খেলায় অংশ নেয় এবং খেলায় চ্যাম্পিয়ন হয়ে এক ভরি স্বর্ণের মেডেল ও নগদ ৭ হাজার টাকা অর্জন করে কক্সবাজারের জেলার মহেশখালী উপজেলার মো: তারিকুল ইসলাম (জীবন) । আর রানার আপ হয়ে অর্ধ ভরি স্বর্ণের মেডেল ও নগদ ৫হাজার টাকা অর্জন করে কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার মো:বাদশা আলম।

খেলায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে পুরষ্কার বিতরণ করেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ দাউদুল ইসলাম, পুলিশ সুপার জাকির হোসেন মজুমদার,পাবর্ত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদের সদস্য কাজল কান্তি দাশ সহ সরকারি বেসরকারী কর্মকর্তারা।

সুয়ালক সুপার স্টার ক্লাবের নতুন জার্সি উন্মোচন

বান্দরবান অফিসঃ- বান্দরবান পার্বত্য জেলার প্রবেশ মূখ খ্যাত ৪ নং সুয়ালক ইউনিয়নের সাড়া জাগানো ক্রীড়া সংগঠন সুয়ালক সুপার স্টার ক্লাবের নতুন জার্সি উন্মোচন অনুষ্ঠিত হয়েছে।আজ বুধবার (৩ মার্চ) সন্ধ্যা ছয়টায় আবদুল কুদ্দুস ফাউন্ডেশন এর গোরস্থান মসজিদ মার্কেটেস্থ কার্যালয়ে এক অনাড়ম্বরপূর্ণ অনুষ্ঠানের মধ্যে দিয়ে এই নতুন জার্সি উন্মোচিত হয়েছে।সিএইচটি টাইমস ডটকম সম্পাদক লুৎফুর রহমান উজ্জ্বল এর সভাপতিত্বে আয়োজিত জার্সি উন্মোচন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট ক্রীড়া সংগঠক,তরুণ সমাজসেবক এবং সফল ব্যবসায়ী মুশফিকুর রহমান সোহেল।এসময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ৪নং সুয়ালক ইউনিয়ন এর প্যানেল চেয়ারম্যান ও স মোঃজসিম উদ্দিন,৩নং কদুখোলা ওয়ার্ডের সাবেক ইউপি সদস্য মোঃরফিকুল আলম,৪নং সুয়ালক ইউনিয়ন ছাত্রলীগ সভাপতি মোঃরাসেল ভুঁইয়া প্রমুখ।এসময় সুয়ালক সুপার স্টার ক্লাবের পক্ষে জার্সি গ্রহণ করেন ক্লাবের অধিনায়ক মেহেদী হাসান মুন্না ও সুয়ালক ইউনিয়ন পরিষদ অফিস সহকারী মোঃখোকন।অনুষ্ঠানের সার্বিক ব্যবস্থাপনায় ছিলেন আব্দুল কুদ্দুছ ফাউন্ডেশন এর প্রতিষ্ঠাতা মোঃআশরাফুর রহমান রুবেল।উল্লেখ্য,তরুণ সমাজকে সন্ত্রাস ও মাদকমুক্ত রাখতে দীর্ঘদিন আব্দুল কু্দ্দুছ ফাউন্ডেশন ও সিএইচটি টাইমস ডটকম এই ধরনের ক্রীড়া সংগঠনগুলোকে ক্রীড়া সরঞ্জাম,জার্সি সহ নানাভাবে পৃষ্ঠপোষকতা করে আসছে।এরই ধারাবাহিকতায় বান্দরবান জেলার সাড়া জাগানো ক্রীকেট টুর্নামেন্ট বান্দরবান প্রিমিয়ার লীগ উপলক্ষে আব্দুল কুদ্দুছ ফাউন্ডেশন ও সিএইচটি টাইমস ডটকম যৌথভাবে সুয়ালক সুপার স্টার ক্লাব কে এই জার্সি প্রদান করে।

বান্দরবানে জেলা পর্যায়ে কাবাডি টুর্ণামেন্টের সমাপনী অনুষ্ঠিত

নিউজ ডেস্কঃ-  মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে বান্দরবানে জেলা পর্যায়ে কাবাডি টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত হয়েছে।গতকাল মঙ্গলবার (২এপ্রিল) বিকেলে বান্দরবান জেলা পুলিশ ও জেলা ক্রীড়া সংস্থার আয়োজনে স্থানীয় রাজার মাঠে টুর্নামেন্টের সমাপনী খেলা ও পুরস্কার বিতরনী অনুষ্ঠিত হয় ।

সমাপনী খেলায় লামা উপজেলা কাবাডি দল ৩০-১০ পয়েন্টে বান্দরবান সদর উপজেলা কাবাডি দলকে পরাজিত করে। খেলা শেষে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বিজয়ী ও রানার্স আপ দলের মধ্যে পুরস্কার প্রদান করেন পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাকির হোসেন মজুমদার। এসময় জেলা প্রশাসক মো:দাউদুল ইসলাম,পৌর মেয়র ও জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ ইসলাম বেবী, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ কামরুজ্জামান, রুমা সার্কেলের সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার রেজওয়ানুল ইসলাম, সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ শহিদুল ইসলাম চৌধুরী, সদর থানার অফিসার ইনর্চাজ (তদন্ত) মো:এনামুল হক ভুইয়া,জেলা ক্রীড়া সংস্থার সহ-সভাপতি দীপ্তি কুমার বড়–য়া,ধারাভাষ্যকার মাহফুজুর রশীদ বাচ্চুসহ ক্রীড়াপ্রেমীরা উপস্থিত ছিলেন।

এবারের জেলা পর্যায়ের কাবাডি টুর্নামেন্টে জেলার ৭উপজেলার ৭ টি দল অংশ নিয়েছে আর জেলা পর্যায়ে বিজয়ী লামা উপজেলা কাবাডি দল আগামীতে বিভাগীয় পর্যায়ে কাবাডি খেলায় অংশ নেবে।

কোয়ান্টাম কসমো স্কুল ও কলেজে জিমনিসিয়াম ভবনের উদ্বোধন

নিউজ ডেস্কঃ- বান্দরবানের লামা উপজেলার সরই ইউনিয়নের কোয়ান্টাম কসমো স্কুল ও কলেজে প্রথম নবনির্মিত জিমনিসিয়াম ভবনের উদ্বোধন করেছে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো:জাহিদ আহসান রাসেল এমপি।

রবিবার সকালে বান্দরবানের লামা উপজেলার দুর্গম সরই ইউনিয়নের কোয়ান্টাম কসমো স্কুল ও কলেজে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো:জাহিদ আহসান রাসেল এমপি এই জিমনিসিয়াম ভবনের উদ্বোধন করেন। এসময় ফিতা কেটে ফলক উন্মোচনের মধ্য দিয়ে নবনির্মিত জিমনিসিয়ান ভবনের কার্যক্রম শুরু হয়।

অনুষ্ঠানে কোয়ান্টাম কসমো স্কুল ও কলেজ পর্যায়ের বিভিন্ন কোয়ান্টা শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন ধরনের মনোমুগ্ধকর জিমন্যাস্টিকস শো প্রদর্শন করে।

এসময় চীন ,থাইল্যান্ড, কোরিয়া, ভারতসহ বিভিন্ন দেশে অংশগ্রহণ করে স্বর্ণ,রৌপ্য ও ব্রোঞ্জ পদক বিজয়ী শিক্ষার্থীরা তাদের বিভিন্ন মনোমুগ্ধকর জিমন্যাস্টিকস শো প্রদর্শন করে।

নবনির্মিত জিমনিসিয়াম ভবনের উদ্বোধন শেষে এক সংক্ষিপ্ত আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয় । এসময় যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো:জাহিদ আহসান রাসেল এমপি, বাংলাদেশ জিমন্যাস্টিক ফেডারশনের সাধারণ সম্পাদক আহমেদুর রহমান, কোয়ান্টাম কসমো স্কুল ও কলেজের পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি অধ্যাপিকা আমেনা বেগম, কোয়ান্টাম কসমো স্কুল ও কলেজের অধ্যক্ষ ছালেহ আহম্মদসহ বিদ্যালয়ের ২ হাজার ২শত ছাত্রী ছাত্রী উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে কোয়ান্টাম কসমো স্কুল মাঠে শিক্ষার্থীদের পরিবেশনায় এক মনোমুগ্ধকর শরীরচর্চা প্রদর্শনী ও ডিসপ্লে অনুষ্ঠিত হয় । শরীর চর্চা প্রদর্শনী ও ডিসপ্লেতে উপস্থিত থেকে সালাম গ্রহন করেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো:জাহিদ আহসান রাসেল এমপি।

অনুষ্ঠানে অতিথিরা কোয়ান্টাম শিশুদের দেশ ও বিদেশে ক্রীড়াক্ষেত্রে বিভিন্ন অবদান রাখার জন্য শিশু শিক্ষার্থীদের ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন এবং আগামীতে দেশের হয়ে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে খেলাধুলায় অংশ নিয়ে দেশের সুনাম অক্ষুণ রাখার জন্য সকলের প্রতি আহবান জানান।

আবারও রাসেল তাণ্ডব,জিতল কলকাতা

স্পোর্টস ডেস্কঃ-আগের ম্যাচে কূটকৌশলে জস বাটলারকে মানকাড় আউট করে দল জিতিয়েছিলেন কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের অধিনায়ক রবিচন্দ্রন অশ্বিন। দল জেতালেও দুর্নামও কুড়িয়েছেন প্রচুর তিনি। তবে বুধবার তার ভুলেই বলতে গেলে কলকাতা নাইট রাইডার্সের কাছে ২৮ রানে হেরেছে দল।

এদিন কলকাতার ইনিংসে ব্যক্তিগত ৩ রানের মাথায় আন্দ্রে রাসেলের স্টাম্প উড়িয়ে দেন মোহাম্মদ শামি। কিন্তু আম্পায়ার নো বলের কল দেন। কারণ অশ্বিন ত্রিশ গজ বৃত্তের ভেতর রাখেন মাত্র তিন ফিল্ডার, যেখানে থাকার কথা ন্যূনতম চারজন। আর ‘জীবন’ পেয়ে ইডেন গার্ডেন্সে আবার তাণ্ডব চালান ক্যারিবীয় এই অল রাউন্ডার। ফেরেন ১৭ বলে ৪৭ রান করে। মেরেছেন ৫টি ছক্কা ও ৩চটি চারে।

এর আগে রোববার সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের বিপক্ষে ১৯ বলে অপরাজিত ৪৯* রানের এক দুর্ধর্ষ ইনিংস খেলে দলকে জিতিয়েছিলেন তিনি।

রাসেলের তাণ্ডব আর রবীন উথাপ্পা ও নিতিশ রানার ঝড়ো ব্যাটিংয়ে আগে ব্যাট করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৪ উইকেটে ২১৮ রানের বিশাল স্কোর গড়ে কলকাতা। উথাপ্পা ৫০ বলে অপরাজিত ৬৭* ও রানা ৩৪ বলে ৬৩ রান করেন। এছাড়া সুনিল নারিন ৯ বলে ২৪ রান করেছেন।

দারুণ খরুচে ছিলেন পাঞ্জাবের বোলাররা। অধিনায়ক অশ্বিন ৪ ওভারে করে দিয়েছেন ৪৭ রান, ছিলেন উইকেট শূন্য। মোহাম্মদ শামি, বরুণ চক্রবর্তীর গড়ও ছিল ১১ এর ওপরে।

এদিকে বড় রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে বড় স্কোর গড়তে পারেনি পাঞ্জাব। ওপেনার লোকেশ রাহুলকে (১) হারায় দলীয় ১১ রানে। ক্যারিবীয় ব্যাটিং দানব ক্রিস গেইলও ২০ রান করেই ফেরেন সাজঘরে। দলের হয়ে সর্বোচ্চ রান করেন ডেভিড মিলার। দক্ষিণ আফ্রিকার এই ব্যাটসম্যান ৪০ বলে অপরাজিত ৫৯* রান করেন। মায়াঙ্ক আগারওয়াল ৩৪ বলে করেন ৫৮ রান। এছাড়া মানদ্বীপ সিং ১৫ বলে অপরাজিত ৩৩ রান করেন। তবু নির্ধারিত ২০ ওভারে ৪ উইকেটে ১৯০ রান পর্যন্ত তুলতে পারে পাঞ্জাব।টানা দ্বিতীয় খেলাতেও সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হন রাসেল।

বান্দরবানে কাবাডি টুর্নামেন্টের সমাপনী ও পুরস্কার বিতরনী অনুষ্ঠিত

বান্দরবানঃ- মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে বান্দরবানে কাবাডি টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত হয়েছে।গতকাল মঙ্গলবার (২৬ মার্চ) বিকেলে বান্দরবান সদর থানার আয়োজনে স্থানীয় রাজার মাঠে টুর্নামেন্টের সমাপনী ও পুরস্কার বিতরনী অনুষ্ঠিত হয় ।

সমাপনী খেলায় বান্দরবান পৌরসভা দল ৫৭-২৪ পয়েন্টে কুহালং ইউনিয়ন দলকে পরাজিত করে। খেলা শেষে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বিজীত ও রানার্স আপ দলের মধ্যে পুরস্কার প্রদান করেন পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাকির হোসেন মজুমদার।

এসময় পৌর মেয়র ও জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ ইসলাম বেবী, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো:কামরুজ্জামান, রুমা সার্কেলের সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার জনাব রেজওয়ানুল ইসলাম ,সদর থানার অফিসার ইনচাজর্ (ওসি) মো:শহীদুল ইসলাম চৌধুরী , সদর থানার অফিসার ইনচাজ (তদন্ত) এনামুল হক ভুইয়া, কুহালং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সানুপ্রু মার্মাসহ ক্রীড়াপ্রেমীরা উপস্থিত ছিলেন।

এবারের কাবাডি টুর্নামেন্টে সদর উপজেলার ৫টি ইউনিয়ন ও পৌরসভার ১টি সহ মোট ৬টি দল অংশ নিয়েছে।

শারীরিক সুস্থতায় ক্রীড়ার কোন বিকল্প নেই: মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং

বান্দরবান অফিসঃ-পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি বলেন, লেখাপড়ার পাশাপাশি শারীরিক সুস্থতার জন্য ক্রীড়ার কোন বিকল্প নেই। শারীরিক প্রশান্তি ও মানসিক উন্নয়নে ক্রীড়া অগ্রনী ভুমিকা পালন করে। এছাড়াও খেলাধুলার মাধ্যমে একটি শিশুকে একজন সুশৃংঙ্খল জাতিতে পরিনত করা যায়, খেলাধুলা মানুষকে শৃংঙ্খলা ও সহানুভুতিতা শেখায়। তাই প্রতিটি মানুষের জীবন গঠনে পড়ালেখার পাশাপাশি খেলাধুলার পরির্”চা অপরিসীম।এসময় পার্বত্য মন্ত্রী আরো বলেন, লেখা পড়ার পাশাপাশি শারীরিক সুস্থতার জন্য ক্রীড়ার কোন বিকল্প নেই। শারীরিক প্রশান্তি ও মানসিক উন্নয়নে ক্রীড়া অগ্রনী ভুমিকা পালন করে। নৈসর্গিক সৌন্দর্যের লীলাভূমি বান্দরবানের ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বান্দরবান ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল ও কলেজের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা-২০১৯ এর সমাপনী ও পুরস্কার বিতরণী গতকাল শনিবার বিকালে কলেজ প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিত হয়েছে।শান্তির প্রতীক শ্বেত কপোত এবং বেলুন উড্ডয়নের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের শুভ সূচনা হয়। বিএনসিসির চৌকস ক্যাডেট, গার্ল গাইডস সমূহ, ফুল দৌড়, দৃষ্টিনন্দন রিলে সহ কয়েকটি ইভেন্টের প্রতিযোগিতা, ভিভিআইডি অতিথিদের অংশগ্রহণে গলফ খেলা অনুষ্ঠিত হয়।প্রতিষ্ঠানের তায়কোয়ান্দো দলের চমকপ্রদ শারীরিক কসরত এবং ডিসপ্লে দলের মনোমুগ্ধকর পরিবেশনায় দর্শক মন্ত্রমুগ্ধ হয়। ডিসপ্লেতে নজরুল হাউজ আবহমান বাংলার সংস্কৃতি, শহীদুল্লাহ হাউজ মুক্তিযুদ্ধ ও বাংলাদেশ এবং বরকত হাউজ ক্ষুদ্র-নৃ-গোষ্ঠির সংস্কৃতিক সুনিপুণভাবে ফুটিয়ে তোলে।এসময় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি। এসময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রতিষ্ঠান পরিচালনা পর্ষদের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি লেঃ কর্ণেল এস এম আব্দুল্লাহ আল-আমিন, পিএসসি।স্বাগত বক্তব্য রাখেন প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ লে: কর্ণেল মো: রেজাউল ইসলাম পিএসসি, পিএইচডি, এইসি।এছাড়াও আরো উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মুহাম্মদ আলী হোসেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মোঃ আবু হাসান সিদ্দিক, বান্দরবান সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল কুদ্দুছ, বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য লক্ষীপদ দাশ, সদস্য মো: মোজাম্মেল হক বাহাদুর, পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড বান্দরবান ইউনিটের প্রকল্প পরিচালক এম আব্দুল আজিজ, পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড বান্দরবান ইউনিটের নির্বাহী প্রকৌশলী আবু বিন মোহাম্মদ ইয়াছির আরাফাত, প্রেসক্লাবের সভাপতি আমিনুল ইসলাম বাচ্চু, মাসিক নীলাচল পত্রিকার সম্পাদক ও প্রকাশক আলহাজ¦ মোহাম্মদ ইসলাম কোম্পানী সহ পদস্থ সামরিক ও বেসামরিক কর্মকর্তাবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন।অনুষ্ঠান শেষে প্রধান অতিথি বিজয়ী হাউস ও বিভিন্ন ইভেন্টের খেলা প্রতিযোগীতায় অংশগ্রহণকারী বিজয়ী শিক্ষার্থীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন।

বান্দরবানে শুরু হল শীতকালীন ব্যাডমিন্টন প্রতিযোগিতা

স্পোর্টস ডেস্কঃ-ব্যাডমিন্টন খেলোড়ারদের উৎসাহ যোগাতে বান্দরবানে শুরু হল শীতকালীন ব্যাডমিন্টন প্রতিযোগিতা । বুধবার সন্ধায় বান্দরবান জেলা আউটার স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হয় টুর্নামেন্টের উদ্বোধণী খেলা।
এতে অংশগ্রহন করে আহসান উল আলম রুমু ও তার সাথী বনাম আরিফুর রহমান ও সাথী। উদ্বোধনী খেলায় রুমু ও তার সাথীকে হারিয়ে জয়লাভ করে আরিফ ও সাথী।
লীগ পদ্ধতিতে অনুষ্ঠিত এ টুর্নামেন্টে দুইটি গ্রæপে সিঙ্গেল খেলায় ১৩ জন ও দ্বৈত খেলায় ৯টি দল অংশগ্রহন করে। টুর্ণামেন্ট কমিটির সদস্য সচিব ওমর ফারুক জানান, লীগ পদ্ধতিতে গ্রæপ পর্বের খেলা শেষে নক আউট পদ্ধতিতে অনুষ্ঠিত হবে সেমি ফাইনাল ও ফাইনাল খেলা। সন্ধা ৭টা থেকে রাত ১১ টা পর্যন্ত চলবে গ্রæপ পর্বের সকল খেলা। সিঙ্গেল ও ডাবল গ্রæপের প্রতিদিন ৮টি খেলা অনুষ্ঠিত হবে।

 

বিপিএলের চট্টগ্রাম পর্ব ঘিরে কয়েক স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা

নিউজ ডেস্কঃ-বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগ টি-২০ (বিপিএল) এর ৬ষ্ঠ আসর এবং ইংল্যান্ড অনুর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেট দলের চট্টগ্রামে অনুষ্ঠিতব্য ম্যাচগুলো সুষ্ঠুভাবে পরিচালনার স্বার্থে ৬টি নিরাপত্তা নির্দেশনা দিয়েছে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ (সিএমপি)।

বৃহস্পতিবার (১৭ জানুয়ারি) সকাল ১১টায় সিএমপি কনফারেন্স হলে আয়োজিত নিরাপত্তা সমন্বয় সভায় এ নির্দেশনা দেওয়া হয়।

সভায় গৃহীত নিরাপত্তা নির্দেশনাগুলো হল- ব্যাগ, ব্যাকপ্যাক, সফট ড্রিংকস, টিফিন বক্স, ক্যামেরা, অ্যালকোহল, পানির বোতল (কাঁচের বোতল/টিনের ক্যান), মার্বেল অর্থাৎ নিক্ষেপযোগ্য কোন পদার্থ নিয়ে স্টেডিয়ামে প্রবেশ করা যাবে না।

আগ্নেয়াস্ত্র, খেলনা আগ্নেয়াস্ত্র, বিস্ফোরক, চাকু, ছুরি, ধারালো অস্ত্র, লাঠি, পাথর নিয়ে স্টেডিয়ামে প্রবেশ করা যাবে না।

লাঠিবিহীন জাতীয় পতাকা, প্ল্যাকার্ড নিয়ে স্টেডিয়ামে প্রবেশ করা যাবে।

কোন প্রকার ইলেক্ট্রনিক ডিভাইস, ক্যাবল বা তার, লেজার পয়েন্টার নিয়ে স্টেডিয়ামে প্রবেশ করা যাবে না।

ধর্মীয়, উপজাতীয়, গোষ্ঠীগত, সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টকারী বক্তব্য সম্বলিত ব্যানার-পোস্টার নিয়ে স্টেডিয়ামে প্রবেশ করা যাবে না।

নিরাপত্তাকর্মীদের কাছে বিপজ্জনক বিবেচিত যে কোন জিনিস নিয়ে স্টেডিয়ামে প্রবেশ করা যাবে না।

সিএমপি কমিশনার মো. মাহাবুবুর রহমানের সভাপতিত্বে সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (প্রশাসন, অর্থ ও ট্রাফিক) কুসুম দেওয়ান, অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ক্রাইম এন্ড অপারেশন) আমেনা বেগমসহ সিএমপির উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

পুলিশ কমিশনার ক্রিকেট ম্যাচগুলো নিরাপদে ও নির্বিঘ্নে সম্পন্ন করতে সকল সংস্থাকে একযোগে আন্তরিকতার সঙ্গে সমন্বিতভাবে কাজ করার ওপর গুরুত্বারোপ করেন।

সমন্বয় সভায় সিএমপির উর্ধ্বতন কর্মকর্তা ছাড়াও চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন, বিসিবি, বিভাগীয় কমিশনার, সেনাবাহিনী, বিমানবাহিনী, সিডিএ, র‌্যাব-৭, জেলা প্রশাসন, ভেন্যু ম্যানেজার, ডিজিএফআই, এনএসআই, চমেক হাসপাতাল, ওয়াসা, এপিবিএন, বাংলাদেশ রেলওয়ে, বিভাগীয় তথ্য অফিস, পিডিবি, সিভিল সার্জন, বিটিসিএল, বিআরটিএ, এয়ারপোর্ট ম্যানেজার, ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স, ইউসিবিএল, হোটেল দি পেনিনসুলা চিটাগং, হোটেল আগ্রাবাদ, হোটেল রেডিসন ব্লু, কর্ণফুলী গ্যাস, আরবিসিবিভি’র প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

দেশের উচ্চতম ট্রেইল ম্যারাথন বান্দরবানে অনুষ্ঠিত

নিউজ ডেস্কঃ-বান্দরবানের রুমা উপজেলার বগালেকে দেশের উচ্চতম ট্রেইল ম্যারাথন অনুষ্ঠিত হয়েছে। কম্পাস ৩৬০ডিগ্রি এডভেঞ্চার ক্লাব ও বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর রুমা ২৭বেঙ্গলের যৌথ আয়োজনে এই ট্রেইল ম্যারাথন অনুষ্ঠিত হয়।

শুক্রবার সকাল ৭টায় বগালেক সেনা ক্যাম্পের সামনে থেকে এই ট্র্ইেল ম্যারাথন শুরু করে এ্যাথলেটরা পাহাড়ের বিভিন্ন দুর্গম পথ পাড়ি দিয়ে দুর্গম কেউক্রাডং প্রদক্ষিণ করে একই স্থানে এসে শেষ করে।

আয়োজকরা জানায়, প্রথমবারেরমত বান্দরবানের রুমা উপজেলার বগালেক থেকে কেউক্রাডং পর্যন্ত ২১কি:মি দীর্ঘ পাহাড়ী পথে এই ট্রেইল ম্যারাথন অনুষ্ঠিত হয়। এ ট্রেইল ম্যারাথনে দেশের বিভিন্ন প্রান্তের মোট ৪২জন এ্যাথলেটার অংশ নেয়। এদের মধ্যে ৯জন নারী। ট্রেইল ম্যারাথনে ২ঘন্টা ১২মিনিট সময় নিয়ে প্রথম হয় তাম্মাত বিল খয়ের। ২ঘন্টা ২১মিনিটে ২য় হয় সাজ্জাদ হোসেন ও ২ঘন্টা ৩০মিনিটে তৃতীয় হয় সজীব আহম্মদ।

এসময় ট্রেইল ম্যারাথনে উপস্থিত থেকে ছিলেন রুমা ২৭বেঙ্গলের জোন কমান্ডার লে: কর্ণেল মোহাম্মদ শাহনেওয়াজ (এসইউপি, পিএসসি)। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন লে:জাহিদ হাসান, বগালেক সেনা ক্যাম্প কমান্ডার মোঃ নজরুল ইসলাম,কম্পাস ৩৬০ডিগ্রি এডভেঞ্চার ক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা প্রধান মোঃ ইমতিয়াজ।