সম্প্রীতি বিনষ্টকারীদের প্রতি পার্বত্য মন্ত্রীর হুঁশিয়ারি


বান্দরবান অফিস প্রকাশের সময় :২৮ জুলাই, ২০১৯ ১২:১৫ : পূর্বাহ্ণ

বান্দরবানে ছেলেধরা ও মাথা কাটা গুজব প্রতিরোধে সচেতনতা সৃষ্টিতে মাঠে নেমেছেন পার্বত্য মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এম,পি।গতকাল ২৭ জুলাই শনিবার সকালে বান্দরবান জেলা পুলিশ ও কমিউনিটি পুলিশিং ফোরাম আয়োজিত র‌্যালি ও আলোচনা সভায় অংশ নেন তিনি।র‌্যালিটি বান্দরবান জেলা প্রশাসক কার্যালয় চত্বর থেকে বের হয়ে বান্দরবান জেলা শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে বঙ্গবন্ধু মুক্তমঞ্চে গিয়ে শেষ হয়।পরে বান্দরবান জেলার পুলিশ সুপার মোঃজাকির হোসেন মজুমদার এর সভাপতিত্বে জেলা পুলিশ ও কমিউনিটি পুলিশিং ফোরাম কতৃক আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য প্রদান করেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি। এসময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত বান্দরবান এর জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ দাউদুল ইসলাম,পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদের সদস্য শফিকুর রহমান,জেলা পরিষদের সদস্য মোজাম্মেল হক বাহাদুর,জেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মং ক্য চিং চৌধুরী।আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে পার্বত্য মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এমপি বলেন,পদ্মা সেতুতে মানুষের মাথা লাগবে এটি একটি গুজব এটির কোন ভিত্তি নেই।যারা পদ্মা সেতু তৈরী হোক এটা চায়না তারাই এমন গুজব ছড়াচ্ছে।দেশব্যাপী ছেলে ধরা সন্দেহে মানুষকে পিটিয়ে আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি অবনতির চেষ্টা চালাচ্ছে একটি মহল।তাই যারা এ ধরণের গুজব ছড়াচ্ছে এবং ছেলেধরা সন্দেহে মানুষকে পিটিয়ে আইন নিজের হাতে তুলে নিচ্ছে,তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে ঘোষনা দেন তিনি।এসময় তিনি আরও বলেন,বান্দরবানের উন্নয়নকে যারা স্বীকার করে না,সম্প্রীতিকে যারা বিশ্বাস করে না,যাদের প্রতি মানুষের আস্থা নেই এ ধরনের কিছু কিছু মানুষ সরকারের বিরুদ্ধে,বান্দরবান জেলার উন্নয়নের বিরুদ্ধে কাজ করছে।কিন্তু তাঁরা ভুলে গেছে এটা সম্প্রীতির বান্দরবান।বান্দরবান এর ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন হয় মতো কোনও কিছু করতে দিব না,আর যদি করতে চান যত বড় রাঘব বোয়ালই হউক না কেনও তাকে ছাড় দেয়া হবে না।এসময় পার্বত্য মন্ত্রী হুশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন, বান্দরবানে একটা মসজিদ হলে একটা মন্দির হবে,একটা মন্দির হলে একটা গির্জা হবে আর একটা গির্জা হলে একটা বিহার হবে।কারণ এটা সম্প্রীতির বান্দরবান।বান্দরবানের জনগণ কে আমি আহবান জানাচ্ছি, “কোনও সন্ত্রাসী,চাঁদাবাজ, সম্প্রীতি বিনষ্টকারীকে আপনারা আশ্রয়,প্রশ্রয় দিবেন না”।এসব চিহ্নিত সন্ত্রাসী আর চাঁদাবাজ কে বান্দরবানবাসী চিনে এবং জানে সুতরাং সম্প্রীতি বিনষ্টকারীদের কোনও ছাড় নাই। আলোচনা সভায় বান্দরবানের পুলিশ সুপার মোঃজাকির হোসেন মজুমদার বলেন,সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যারা এ ধরণের গুজব ছড়িয়ে দিচ্ছে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নেয়া হবে।এসময় তিনি ছেলে ধরা সন্দেহে কাউকে না পিটিয়ে সাথে সাথে পুলিশকে খবর দেয়ার জন্যও সবার প্রতি অনুরোধ জানান।উল্লেখ্য,গুজব প্রতিরোধে সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে ২৫ জুলাই থেকে ৩১ জুলাই পর্যন্ত সচেতনতা সপ্তাহ পালন করছে বান্দরবান জেলা পুলিশ।এতে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে প্রচার অভিযান,মাইকিং সহ নানা কর্মসূচি পালন করা হচ্ছে।

ট্যাগ :

আরো সংবাদ



আর্কাইভ
অক্টোবর ২০১৯
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« সেপ্টেম্বর    
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০৩১  
আলোচিত খবর
error: কি ব্যাপার মামা !!