দৈনিক অধিকারে সংবাদ প্রকাশের পর চাঁদা আদায়কারী শিক্ষকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা


সিএইচটি টাইমস অনলাইন প্রকাশের সময় :২৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ৮:৪৯ : অপরাহ্ণ

বান্দরবান সদর উপজেলার সুয়ালক উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীরা বিদ্যালয়ে উপস্থিত না থাকলে লেট ফি নামে ছাত্র-ছাত্রীদের কাছে মাসিক চাঁদা আদায়সহ শিক্ষার্থীদের শারীরিক নির্যাতন ও গালাগালির অভিযোগ উঠার সংবাদ দৈনিক অধিকারে প্রকাশের পর স্কুলের শিক্ষকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটি।

রবিবার (২৯ সেপ্টেম্বর) সকালে দৈনিক অধিকারের জেলা প্রতিনিধিকে সুয়ালক উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা ও বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি সাবেক সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল কুদ্দুছ বিষয়টি মুঠোফোনে নিশ্চিত করে দৈনিক অধিকারকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন।

সুয়ালক উচ্চ বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটির সভাপতি আব্দুল কুদ্দুস জানান,সুয়ালক উচ্চ বিদ্যালয় থেকে অবৈধভাবে টাকা নেওয়াসহ নানা অভিযোগ আমার জানা ছিল না।দৈনিক অধিকারে প্রকাশিত সংবাদ পড়ে আমি জেনেছি।তারা বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির অগোচরে যদি বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে অবৈধভাবে কোনও টাকা আদায় করে থাকে তবে তা অবশ্যই নিন্দনীয় বিষয়।এসময় তিনি আরও বলেন,গনমাধ্যমে এমন অভিযোগ নিয়ে সংবাদ প্রকাশ হওয়ায় উক্ত অভিযোগ গুলো নিয়ে চলতি সপ্তাহে বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির জরুরী সভা আহবান করা হয়েছে।প্রকাশিত খবরে বিদ্যালয়ের ধর্মীয় শিক্ষক আব্দুল লতিফ সহ যে দুই শিক্ষকের বিরুদ্ধে সুস্পষ্ট অভিযোগ পাওয়া গেছে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এদিকে,সংবাদ প্রকাশের পর বান্দরবান জেলা শিক্ষা অফিসার সুমারানি বড়ুয়ার নেতৃত্বে একটি টিম উচ্চ বিদ্যালয় পরিদর্শন করেছেন।এ সময় জেলা শিক্ষা অফিসার বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের ছাত্র-ছাত্রীদের শারীরিক নির্যাতনসহ অবৈধভাবে কোনো ধরনের টাকা পয়সা না নেওয়ার জন্য নির্দেশ দেন।

উল্লেখ্য,গত বৃহস্পতিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) বান্দরবান সদর উপজেলার সুয়ালক উচ্চ বিদ্যালয় পরিদর্শনকালে ছাত্র-ছাত্রীরা এসব অভিযোগ করলে দৈনিক অধিকারে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়।

জানা যায়,ছাত্রছাত্রীরা অসুস্থ বা কোনো কারণে স্কুলে অনুপস্থিত থাকলে সুয়ালক উচ্চ বিদ্যালয়ের ধর্মীয় শিক্ষক মাওঃআব্দুল লতিফ সহ দুয়েকজন শিক্ষক দীর্ঘদিন ধরে ছাত্র-ছাত্রীদের শারীরিক নির্যাতনসহ বিভিন্ন মনগড়া কার্যকলাপ চালিয়ে আসছে।শিক্ষার্থীরা স্কুলে অনুপস্থিত থাকলে মাঃআব্দুল লতিফ শিক্ষার্থীদের শারীরিক নির্যাতন করে দৈনিক ২০ টাকা করে অনুপস্থিতির ফি হিসেবে জোর করে আদায় করে নিচ্ছে বলেও ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীরা অভিযোগ করেছে।

ট্যাগ :

আরো সংবাদ



আর্কাইভ
অক্টোবর ২০১৯
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« সেপ্টেম্বর    
 
১০১১১২১৩
১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
২৮২৯৩০৩১  
আলোচিত খবর
error: কি ব্যাপার মামা !!