তিনটি ব্যাংক অ্যাকাউন্ট জব্দে দুশ্চিন্তায় তারেক দম্পতি! অপকর্মে ক্ষিপ্ত বাঙালি কমিউনিটি


সিএইচটি টাইমস নিউজ ডেস্ক প্রকাশের সময় :২১ এপ্রিল, ২০১৯ ২:৪৪ : অপরাহ্ণ

অবৈধ সম্পদ অর্জন ও অবৈধ লেনদেনের দায়ে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ও দণ্ডিত নেতা তারেক রহমান ও তার স্ত্রী জোবায়দা রহমানের তিনটি অ্যাকাউন্ট জব্দ করেছে যুক্তরাজ্য সরকার।

যুক্তরাজ্যের স্যানট্যান্ডার ব্যাংকের তারেক ও জোবায়দার তিনটি ব্যাংক হিসাবে অবৈধভাবে লেনদেনের দায়ে যুক্তরাজ্যের ফিন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিট (এফআইইউ) ৫৯ হাজার ৩৪১ দশমিক ৯৩ পাউন্ড জব্দ করেছে। স্থগিতাদেশ থাকার পরও অপকৌশলে সেই অর্থ অন্যত্র হস্তান্তর করার চেষ্টায় অসফল হয়েছেন তারেক দম্পতি বলেও জানা গেছে।

যুক্তরাজ্য বাঙালি কমিউনিটি নেতাদের বরাতে জানা গেছে, তিনটি ব্যাংক অ্যাকাউন্টের সন্দেহজনক লেনদেনের বিষয়ে চুলচেরা বিশ্লেষণ করে অভিযোগ প্রমাণিত হলে দুজনের বিরুদ্ধ শিগশিরই আইনি ব্যবস্থা নিবে বলে ঘোষণা দিয়েছে দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। অপরাধ ও অভিযোগ প্রমাণিত হলে তারেক দম্পতির রাজনৈতিক আশ্রয়ও বাতিল হতে পারে। জেল-জরিমানারও শঙ্কা দেখা দিয়েছে এই ঘটনায়।

লন্ডনের কিংস্টন এলাকার বাঙালি কমিউনিটির নেতা বারেক মোল্লার বরাতে জানা যায়, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে অর্থাৎ গত বছরের ডিসেম্বর মাসে তারেক দম্পতির তিনটি অ্যাকাউন্টে অস্বাভাবিক লেনদেন হওয়ায় সন্দেহবশত এফআইইউ এর চৌকশ দল তদন্তে নেমে ব্যাপক দুর্নীতি ও অনিয়মের সন্ধান পায়। রাজনৈতিক আশ্রয়ে থাকা ব্যক্তিদের অ্যাকাউন্টে হাজার হাজার পাউন্ডের লেনদেনে হতবাক হয়েছে সংস্থাটি। বৃহত্তর তদন্তে বেরিয়ে আসে আরো ভয়াবহ সব তথ্য। দান-খয়রাত করার নামে হাজার হাজার ডলার জমা হয়েছে তিনটি অ্যাকাউন্টে। বিশেষ করে বাংলাদেশে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের মাসে হঠাৎ করে তিনটি অ্যাকাউন্টে হাজার হাজার পাউন্ড জমা হওয়ায় তদন্তে নামতে বাধ্য হয়েছে দেশটি। রাজনৈতিক আশ্রয়ের অন্তরালে তারেক দম্পতি অর্থ পাচার চক্রের সঙ্গে জড়িয়ে পড়ায় ক্ষোভ ও হতাশা প্রকাশ করেছে দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

তিনি আরো বলেন, ইন্টারপোলের তরফ থেকেও একাধিকবার তারেক দম্পতির বিষয়ে তদন্তের দাবি জানালেও তাতে সায় দেয়নি ব্রিটিশ সরকার। কিন্তু সর্বশেষ এই তদন্তে টনক নড়েছে দেশটির কর্তৃপক্ষের। রাজনৈতিক আশ্রয়ে থাকা ব্যক্তি কোন খাত থেকে এত টাকা পাচ্ছেন বা আয় করছেন সেটি নিয়েও নানা বিতর্ক সৃষ্টি হয়েছে। শুনেছি, ব্যাংক অ্যাকাউন্ট জব্দ হওয়ায় বিব্রতকর অবস্থায় পড়েছেন তারেক রহমান। এসব কারণে নেতা-কর্মীদের সাথে দেখা করাও বন্ধ করে দিয়েছেন তিনি। গুঞ্জন উঠেছে যে, বৃহত্তর তদন্তে অর্থ পাচার ও দুর্নীতি প্রমাণিত হলে রাজনৈতিক আশ্রয় বাতিলসহ জেল-জরিমানা হতে পারে তারেক দম্পতির। বিদেশে অপকর্ম করে বাঙালিদের বদনাম করায় লন্ডন প্রবাসী বাংলাদেশিদের মাঝে ক্ষোভ ও হতাশা বিরাজ করছে।

ট্যাগ :

আরো সংবাদ



আর্কাইভ
আগষ্ট ২০১৯
সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
« জুলাই    
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০৩১  
আলোচিত খবর
error: কি ব্যাপার মামা !!